মৃত্যু তোমাকে স্পর্শ করেনি

“মৃত্যু তোমাকে স্পর্শ করেনি”

আমি অবাক হইনি,স্তব্ধ হয়েছি!
নরপিশাচের কান্ড দেখে,
বাংলার মাটি কলুষিত হলো
পিতা তোমার রক্ত মেখে।
শকুনের রক্ত চোখের লেলিহান শিখা,
ছারখার করে দিল স্বপ্ন দেখার প্রহর।
হায়েনার হিংস্র থাবায় কলংকিত হলো
১৫আগষ্টের মায়াময়ি এক ভোর।
মৃত্যু হলো এক মহামানবের
ধ্বংস হলো তার পুরো পরিবার।
স্তব্ধ হলো বাংলার আকাশ বাতাস
রইল না আর কিছু হারাবার।
নি:স্ব হলো জাতি, পিতা হারা শোকে
পিতা তুমি অমর,মৃত্যু তোমাকে স্পর্শ করেনি। 
যতদিন থাকবে বাংলার আকাশ-বাতাস
তুমি ততদিনই বেঁচে রবে।
তোমার দেখা স্বপ্ন বুনে
সফল হবে এ জাতি।
   তুমি রবে বাংলার প্রতি ঘরে,প্রতিটি দিবস-রাতি।
শোক আজ শক্তি হয়েছে মনে,
শত বাধা তাই তুচ্ছ করেছে জাতি।
১৫আগষ্ট এলেই পাজর ভেঙ্গে যায়,
পিতা তুমি সাহস যুগিও,হয়ে মোদের সাথী।

কবি/ লেখক: মো: মুকতার আলী, দুর্গাপুর-রাজশাহী।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।