যুক্তরাষ্ট্র সফররত এমপি আবু জাহির ও চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান সামাদ চৌধুরী’র সম্মানে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের মতবিনিময় অনুষ্টিত

ছরওয়ার হোসেন, নিউইয়র্ক থেকে ::
যুক্তরাষ্ট্র সফররত জাতীয় সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট আবু জাহির (হবিগঞ্জ ৩) এবং যুক্তরাজ্য থেকে প্রচারিত চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী’র যুক্তরাষ্ট্র আগমন উপলক্ষে নিউ ইয়র্কে জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইনক এর কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়। রবিবার(৪আগষ্ট) সংগঠনের সভাপতি বদরুল খানের সভাপতিত্বে এবং সহ সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী শেফাজ ও কোষাধ্যক্ষ আতাউল গণি আসাদ’র পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ ৩ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট আবু জাহির এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য থেকে প্রচারিত চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান আহমেদ উস সামাদ চৌধুরী।
অনুষ্ঠান ঘিরে বিভিন্ন শ্রেণীপেশার কমিউনিটি ব্যক্তিবর্গের ব্যাপক উপস্থিতি ঘটে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রবাসী ও দেশের গণমানুষের চাহিদার প্রেক্ষিতে দেশের উন্নয়নে বর্তমান সরকারের সার্বিক কর্মকান্ডের উপর আলোকপাঁত করেন।
তিনি বলেন, আমরা যতোই সমালোচনা করিনা কেন, এটা স্বীকার করতেই হবে যে, বাংলাদেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নের এ গতিধারা অব্যাহত থাকলে অচিরেই আমরা গণমানুষের সকল চাহিদা পূর্ণ করতে সক্ষম হবো। তিনি সিলেটের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ও বৃহত্তর সিলেটের সংসদ সদস্যদের ব্যাপক আন্তরিকতার বিষয়টি উপস্থাপন করেন।

বিশেষ অতিথি যুক্তরাজ্যের বাঙালি কমিউনিটির উন্নয়নে তার নানাবিধ কর্মকান্ডের অভিজ্ঞতার আলোকে আর্থ সামাজিক ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের আশু সফলতার প্র‍ত্যাশা করেন। তিনি নতুন প্রজন্মের জ্ঞানন্বেষনের উপর কমিউনিটির সার্বিক উন্নতির বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
পরিশেষে অনুষ্ঠানের সভাপতি আমন্ত্রিত অতিথিদের প্রতি শুভেচ্ছা ব্যক্ত করেন।

অন্যান্যদের মধ্যে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, সাবেক সভাপতি আব্দুল বাছিত ও শামসুন্নাহার মিতা, ডেমোক্রেটনেতা আব্দুশ শহীদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, গীতিকার গৌছ উদ্দিন, সাংবাদিক আবু তাহের ও রশিদ আহমদ, মাওলানা সাইফুল সিদ্দিকী, সোনার বাংলার পিপল সার্ভিসেস’র পরিচালক ছরওয়ার হোসেন, কমিউনিটি নেতা সাগর মোহাম্মদ ছানু, যুবসংগঠক সাহিদ সিরাজ সৌরভ প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে প্রবাসী বক্তাগণ নিজেদের অভিজ্ঞতার আলোকে বাংলাদেশের নানাবিধ উন্নয়ন ও সমস্যা চিহ্নিত করে এসব নিরসনে দেশের রাজনীতিক ও মিডিয়ার কাংখিত ভূমিকার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তাদের বক্তব্যে নিজ মাতৃভূমির প্রতি অশেষ মমত্ববোধ ফুটে উঠে। অনেকে দেশের সর্বব্যাপী দূর্ণীতি ও অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে ক্ষোভ ব্যক্ত করেন।
তারা বলেন, অনেক নেতিবাচক রাজনৈতিক সামাজিক পরিস্থিতি বিরাজমান থাকা সত্বেও দেশ সার্বিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা স্বীকার করতে হবে। বক্তাগণ দুজন অতিথির জীবনের নানা অর্জন এবং মানুষের কল্যানে তাদের নানামূখি কর্মকান্ডের উপর আলোকপাঁত করত: তাদের সুন্দর ও সফল ভবিষ্যত কামনা করেন।