সাংবাদিক গ্রেপ্তার, কাশ্মীরে নানা বিধি-নিষেধ

নিউজ ডেস্ক:    কাশ্মীর নিয়ে কয়েক দিন ধরে চাপা উদ্বেগ ও চরম উত্‍‌কণ্ঠার মধ্যেই শনিবার গ্রেফতার করা হল উপত্যকার এক সাংবাদিককে। গ্রেপ্তার কাজি শিবলি সেখানকার এক অনলাইন পোর্টালের বার্তা সম্পাদক। কাশ্মীরে বাড়তি আধা-সামরিক বাহিনীর সেনা মোতায়েনের নির্দেশনা টুইটারে ফাঁস করেছিলেন তিনি। টাইম অব ইন্ডিয়া।

কাশ্মীরে বাড়তি আধা-সামরিক বাহিনীর সেনা মোতায়েন বিষয়ে কয়েকটি টুইটের পরে তাঁকে ডেকে জেরা করে পুলিশ। জবাবে খুশি না-হয়ে, পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। এই ঘটনার জেরে কাশ্মীরে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এর আগে কাশ্মীর থেকে সকল পর্যটককে কাশ্মীর ছাড়ার নির্দেশ দেয় ভারত। মোতায়েন করা হয় হাজার হাজার সেনা।

সম্প্রতি আসিফ সুলতান নামে আরও এক সাংবাদিকে গ্রেফতার করেছে কাশ্মীর পুলিশ। গত ফেব্রুয়ারি মাসে উপত্যকার দু’টি বড় সংবাদপত্রে সরকারি বিজ্ঞাপনও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু, সরকারিভাবে তার কোনও কারণ ব্যাখ্যা করা হয়নি।

২০১৮ সালের মে মাস থেকে কাশ্মীরে বিদেশি সাংবাদিকদের গতিবিধির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ হয়েছে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি ছাড়া কোনও বিদেশি সাংবাদিক কাশ্মীরে কাজ করতে পারবেন না।