ডেঙ্গুর কারনে পেছাল দুই সিটির বাজেট ঘোষণা

 

স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন অনুযায়ী, সিটি করপোরেশনগুলো জুন মাসের ১ তারিখে পরবর্তী অর্থ বছরের প্রাক্কলিত আয়-ব্যয়ের একটি বিবরণ নির্ধারিত পদ্ধতিতে প্রস্তুত ও অনুমোদন করবে, যা পরে বাজেট বলে অভিহিত হবে। যদিও ঢাকার দুই করপোরেশনে অতীত বলছে, প্রতিবছরই তারা বিলম্বে বাজেট প্রণয়ন করে থাকে। উত্তর সিটিতে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাজেট ঘোষণা হয়েছিল ২৯ জুলাই, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে হয়েছিল ২৬ জুন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ২১ জুন এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরে হয়েছিল ৩১ জুলাই। ঢাকা দক্ষিণ সিটি ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাজেট ঘোষণা করেছিল ৩০ জুলাই, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে করেছিল ২৮ জুলাই, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ২৪ জুলাই এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরে করেছিল ২৬ জুলাই।

দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা খাদেমুল করিম ইকবালও একই দাবি করেন, ডেঙ্গুর কারণেই বাজেট ঘোষণায় বিলম্ব হচ্ছে। তিনি বলেন, ১৬ জুলাই বাজেট ঘোষণার তারিখ প্রস্তাব করা হয়েছিল। এ জন্য কাউন্সিলরদের সঙ্গে বৈঠকও হয়েছে। কিন্তু হঠাৎ করে ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ায় বাজেট ঘোষণা পিছিয়ে গেছে। কোরবানির আগে বাজেট ঘোষণার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ তোফায়েল আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, ‘ডেঙ্গু পরিস্থিতির কারণে সঠিক সময়ে বাজেট ঘোষণা করা যাচ্ছে না, এটা খোঁড়া যুক্তি। মশা মারা কি সিটি করপোরেশনের প্রত্যেক বিভাগের কাজ? আইন অনুযায়ী, জুলাই মাসে নতুন অর্থ বছর আসার আগেই বাজেট ঘোষণা করতে হবে। তা না হলে জুলাই মাসে তারা যা খরচ করবে তার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেবে।’