ভারতের কফি চেইনের প্রতিষ্ঠাতার মরদেহ উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক:   দীর্ঘ তল্লাশির পর উদ্ধার হয়েছে জনপ্রিয় ভারতীয় চেইন শপ ‘ক্যাফে কফি ডে’র প্রতিষ্ঠাতা ও মালিক ভি জি সিদ্ধার্থ নিথর দেহ। নিখোঁজের ৩৬ ঘন্টা পর বুধবার সকালে কর্নাটকের নেত্রাবতী নদী থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার হয়েছে বলে জানান ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মেঙ্গালুরু সিটি পুলিশ। দেহ উদ্ধার করে ওয়েনলক হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

সোমবার রাত থেকেই খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না ক্যাফে কফি ডে-র প্রতিষ্ঠাতার। কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এস এম কৃষ্ণর জামাই ভি জি সিদ্ধার্থকে শেষবার মেঙ্গালুরুতে নেত্রাবতী নদীর কাছে দেখা যায়। এরপরই তল্লাশিতে নামে পুলিশ।

এর আগে পুলিশের কাছে দেওয়া বক্তব্যে সিদ্ধার্থর গাড়িচালক বাসবরাজ পাতিল বলেছেন, একটি টয়োটা গাড়িতে করে তারা বেঙ্গালুরু থেকে সকলেশপুর যাচ্ছিলেন, পথে গাড়ি ঘুরিয়ে তাকে মেঙ্গালুরুর দিকে যেতে বলেন সিদ্ধার্থ।

মেঙ্গালুরুর নিকটে নেত্রাবতী নদীর একটি সেতুর কাছে আসার পর তাকে গাড়ি থামাতে বলে গাড়ি থেকে নেমে যান তিনি।

এরপর চালককে সেতুর অপর প্রান্তে গিয়ে অপেক্ষা করতে বলেন। গাড়িচালক বলেন, ‘তিনি (সিদ্ধার্থ) হেঁটে আসবেন বলে জানান। কিন্তু এক ঘণ্টা পার হওয়ার পর রাত ৮টার দিকে তাকে ফোন দেওয়া হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাই। এরপর বিষয়টি আমি তার ছেলেকে ও পুলিশকে জানাই।’

এছাড়া জানা যায়, সিদ্ধার্থ একটি চিঠি রেখে যান। যে চিঠিতে ফুটে উঠেছে হতাশা আর লড়াই আর ব্যর্থতার কথা। এতে লেখা, যারা আমার ওপর ভরসা করেছিলেন তাদের ভরসা রাখতে না পারার জন্য আমি দুঃখিত। আমি ব্যর্থ৷ দীর্ঘদিন ধরে আমি লড়াই করছি, কিন্তু আর চাপ নিতে পারছি না৷

কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও লেখেন, অনেক চেষ্টা করেও লাভজনক একটা বিজনেস মডেল করতে পারলাম না। একদিকে রয়েছে অর্থনৈতিক চাপ, অন্যদিকে অনেক ঋণও হয়ে রয়েছে। কিন্তু কাওকে প্রতারণা করার মতো কোনও ইচ্ছে আমার ছিল না।

সিদ্ধার্থর ক্যাফে কফি ডে ভারতের সবচেয়ে বড় কফি চেইন শপ। ভারত জুড়ে এর ১ হাজার ৭৫০টি ক্যাফে শপ আছে এবং মালয়েশিয়া, নেপাল ও মিসরে কয়েকটি আউটলেটও আছে।