খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি অপরাজনীতি করছে: হাছান মাহমুদ

নিউজ ডেস্ক:   বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি অপরাজনীতি করছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, প্রকৃতপক্ষে তার উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার জন্য সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা করেছে।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে আজ রবিবার মেয়েদের মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সাংবাদিকতা ফেলোশিপের সার্টিফিকেট ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি প্রতিনিয়ত অপরাজনীতি করছে। প্রকৃতপক্ষে বেগম খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার জন্য সরকার সব কিছু করছে। দেশের সর্বোচ্চ মেডিকেল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার জিহ্বায় যখন কামড় লেগেছিল, তখন তারা বলেছিল বেগম জিয়ার জীবন শংঙ্কার মুখে তিনি কিছু খেতে পারছেন না। একটা ছোট্ট বিষয়কে তারা যেভাবে তারা বলেছিলেন, সেটা অত্যন্ত হাস্যকর। এখন আবার তার দাঁতের ব্যাথা বা সামান্য সমস্যা দেখা দিয়েছে, এটা নিয়েও তারা বলছেন বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য খুব খারাপ। কয়দিন পরপর এগুলো বলে তারা আসলে নিজেদের হাস্যস্পদ করে তুলছেন। অথচ বেগম জিয়ার জন্য কারাগারে একজন সার্বক্ষণিক চিকিৎসক ও নার্স রয়েছেন। তারা নিয়মিত তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছেন। কোনো কোনো সময় তার ইচ্ছানুযায়ী ব্যক্তিগত চিকিৎসকরাও তার সঙ্গে পরামর্শ করতে পারছেন।

বেগম জিয়াকে এভাবে মানুষের সামনে উপস্থাপন করা ঠিক নয় উল্লেখ করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, এটা বিএনপির রাজনৈতিক দৈন্যতা। বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে তারা অপরাজনীতি করছেন, এটা ঠিক নয়।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘দেশের অনেক মানুষ এখন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন, তবে এটা মহামারি আকারে হয়নি। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার সব ধরনের আয়োজন করেছে। ডেঙ্গু শুধু বাংলাদেশেই নয়, এশিয়ার অন্যান্য দেশেও হচ্ছে। আশা করছি, দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই পরিস্থিতির উত্তরণ ঘটবে। কিন্তু বিএনপি যেভাবে সংবাদ সম্মেলন করে ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে এই বিষয়টিকে উপস্থাপন করছে এবং তাদের কথাবার্তা শুনে মনে হয় যেন মশায় কামড়ানোর জন্য আওয়ামী লীগ দায়ী।’ বাসস