পাচ শতাধিক ফোন পুড়িয়ে দিলেন আইডিয়ালের শিক্ষকরা

আইডিয়াল কলেজের পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীর মোবাইল ফোন ভাঙার পর সেগুলো পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। গত শনিবার কলেজে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, ওইদিন এক শিক্ষিকা ক্লাসে ব্লাকবোর্ডে লিখছিলেন। এ সময় অসতর্কাবস্থায় শিক্ষিকার আপত্তিকর ছবি মোবাইলে ধারণ করে ক্লাসের এক ছাত্র। বিষয়টি বুঝতে পেরে শিক্ষিকা ওই ছাত্রকে অধ্যক্ষের কাছে নিয়ে যান। পরে ছাত্রের অভিভাবক এসে ক্ষমা চেয়ে ছাত্রটিকে নিয়ে যান। এরপরই অধ্যক্ষ জসিম উদ্দিন আহমেদ শিক্ষার্থীদের মোবাইল সার্চ করার নির্দেশ দেন। প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীর কাছে ফোন খুঁজে পেয়ে তা ভেঙে ফেলা হয়। পরে তা পুড়িয়ে দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ফোন পুড়িয়ে ফেলার সময় বাধা দিতে গেলে তাদের কয়েকজনকে প্রহার করা হয়। এ বিষয়ে জানতে গতকাল অধ্যক্ষ জসিম উদ্দিন আহমেদের মোবাইলে কল দেওয়া হলে তা বন্ধ পাওয়া গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কলেজের এক শিক্ষক এ প্রতিবেদককে বলেন, পাঁচ শতাধিক নয় অল্প কয়েকটি মোবাইল ভাঙা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও অনেকে তা ব্যবহার করছিল। এ বিষয়ে দফায় দফায় সতর্ক করলেও তারা ব্যবহার বাদ দেয়নি। একজন শিক্ষিকার আপত্তিকর ছবি তুলে। নাইম রহমান, ঢাকা নিউজ