চিকিৎসাধীন এরশাদকে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়েছে: জি এম কাদের

নিউজ ডেস্ক: সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদকে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে ডাকা হলে তিনি চোখ মেলে তাকিয়েছেন। এরশাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে তাঁর ভাই জি এম কাদের আজ এসব কথা জানান।

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের আজ এরশাদের অবস্থা সম্পর্কে গণমাধ্যম কর্মীদের ব্রিফ করছিলেন। আজ বেলা একটায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে এ আয়োজন করা হয়।

জি এম কাদের বলেন, গেল তিন থেকে চার দিন পর্যন্ত এরশাদের শারীরিক অবস্থা সার্বিকভাবে অপরিবর্তিত আছে। তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে অবনতি হয়েছে। কাদের বলেন, এভাবে সাত থেকে আট দিন শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত থাকলে ধীরে ধীরে উন্নতির আশা করছেন চিকিৎসকেরা।

জি এম কাদের বলেন, এরশাদের রক্তচাপ এবং অক্সিজেন গ্রহণ স্বাভাবিক আছে। ফুসফুসের সংক্রমণ কমেছে। কিন্তু কিডনি পুরোপুরি কাজ না করায় তাঁকে ডায়ালাইসিস দেওয়া হচ্ছে। হেমো ডায়া ফিল্টারেশনের মাধ্যমে তাঁর রক্তের বর্জ্য বের করা হচ্ছে। আর হেমো ডায়া পারফিউশনের মাধ্যমে তাঁর সংক্রমণ অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জি এম কাদের বলেন, সিঙ্গাপুরের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা এমন শারীরিক অবস্থায় এরশাদকে বিদেশে নেওয়া ঝুঁকিপূর্ণ মনে করেছেন। সিএমএইচের চিকিৎসকেরা বোর্ড গঠন করে এবং বিদেশি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করে তাঁকে চিকিৎসা দিচ্ছেন। সিএমএইচের চিকিৎসায় সন্তোষ প্রকাশ করে জি এম কাদের বলেন, সিএমএইচে এরশাদের বিশ্বমানের চিকিৎসা চলছে।

আজ জি এম কাদের গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ জাহাঙ্গীদের মৃত্যুতে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

আজ ব্রিফিংয়ের সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য এস এম আব্দুল মান্নান, সুনীল শুভ রায়, এস এম ফয়সল চিশতী, মো. আজম খান প্রমুখ।