ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত জাতীয় দলের নারী ফুটবলার মার্জিয়া ও সাজেদা, ময়মনসিংহ মেডিকেলে ভর্তি

 

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, ময়মনসিংহ
জাতীয় নারী দলের ফুটবল খেলোয়াড় ময়মনসিংহে ধোবাউড়া উপজেলার কলসিন্দুরের ফুটবল কন্যা মার্জিয়া আক্তার ও সাজেদা খাতুন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১১ নম্বর ওয়ার্ডে তাদের ভর্তি করা হয়। ৭দিন জ্বরে আক্রান্ত থাকার পর মঙ্গলবার সকালে কলসিন্দুর স্কুল এন্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ মালা রাণী সরকার, সিএনজি করে ধোবাউড়ার কলসিন্দুর থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক লক্ষী নারায়ণ মজুমদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ফুটবল কন্যা দুজনের শরীরে প্রাথমিক পর্যায়ের ডেঙ্গু জ্বর পজেটিভ রয়েছে। চিকিৎসার জন্য সব ধরণের ব্যবস্থা প্রহণ করা হয়েছে। তাদের পরীক্ষা-নিরিক্ষা করানো হয়েছে। আপাতত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেই তাদের চিকিৎসা করা সম্ভব। বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা দেয়া হয়েছে  (বুধবার) রিপোর্ট দেয়ার পর বিস্তারিত বলা যাবে। তবে ডেঙ্গু রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ্য না হওয়া পর্যন্ত আশংকা থেকে যায় বলে উপ-পরিচালক জানান।

মার্জিয়া আক্তার ও সাজেদা খাতুনের স্বজনরা জানান, জাতীয় দলের ফুটবল কণ্যাদের উন্নত চিকিৎসা দেয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান।
জ্বরে আক্রান্ত মার্জিয়া ও সাজেদা জানান, গত ২ জুলাই তারা জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে ৪ জুলাই রক্ত পরীক্ষা শেষে তারা গ্রামের বাড়ি কলসিন্দুরে চলে আসেন। সোমবার (৮ জুলাই) রাতে তারা জানতে পারেন যে তাদের ডেঙ্গু জ্বর হয়েছে।

কলসিন্দুর স্কুল এন্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ মালা রাণী সরকার জানান, মেয়েরা জ্বরে আক্রান্ত হলে ফুটবল ফেডারেশন কর্তৃপক্ষ তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরে গত সোমবার (৮ জুলাই) রাতে ফুটবল ফেডারেশন থেকে জানানো হয় তারা দু’জনেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত। তাই মঙ্গলবার ৯জুলাই সকালে তাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছি।
মার্জিয়া আক্তার ও সাজেদা খাতুন দুইজনই জাতীয় দলের খেলোয়াড়। বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা আন্তর্জাতিক ফুটবল দল অনুর্ধ্ব-১৯ ও আন্তর্জাতিক নারী ফুটবল দল অনুর্ধ্ব-১৬ ও অন্যান্য দলে খেলেন তারা।