বাম জোটের হরতাল পালিত

নিউজ ডেস্ক:   গ্যাসের দাম বৃদ্ধি ও গণবিরোধী বাজেটের প্রতিবাদ এবং সিলিন্ডার গ্যাসের দাম কমানোর দাবিতে বামপন্থি তিন জোটের ডাকে দেশব্যাপী অর্ধদিবস হরতাল পালিত হয়েছে।

রোববার সকাল ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই কর্মসূচি বেলা ২টায় শেষ হয়। হরতালে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মিছিল ও জমায়েত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

সকালে পল্টন থেকে একটি মিছিল বাহাদুর শাহ পার্কের দিকে যায়। শাহবাগ মোড়ে সড়ক বন্ধ করে দিয়ে অবস্থান নেয় প্রগতিশীল ছাত্রজোট। হরতালে গণপরিবহনে তেমন কোনও প্রভাব পড়েনি। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় আয়োজিত মিছিলে পুলিশ হামলা চালিয়েছে ও গ্রেফতার করেছে।

বাম গণতান্ত্রিক জোট, বাম ঐক্যফ্রন্ট এবং গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য নামের পৃথক তিন জোটের ডাকা এ কর্মসূচিতে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে বিএনপি, গণফোরাম, জেএসডি, নাগরিক ঐক্য, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, বাংলাদেশ ন্যাপ এবং ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এনডিপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল।

বাম জোটগুলোর দাবির সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে হরতালে রাজপথে থাকার ঘোষণা দিয়েছে শ্রমিক ও পেশাজীবী বিভিন্ন সংগঠনও।

পহেলা জুলাই থেকে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ওই দিন বিক্ষোভ সমাবেশ করে ৭ জুলাই দেশব্যাপী অর্ধদিবস হরতাল ডাকে আটটি বামপন্থি দল নিয়ে গঠিত বাম গণতান্ত্রিক জোট। পরে অভিন্ন দাবিতে একই দিনে হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা করে বাম ঐক্যফ্রন্ট ও গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য।

হরতাল সফল করতে গত কয়েক দিন ধরে রাজধানীসহ সারাদেশে প্রচারণামূলক বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে বামপন্থি জোট ও তাদের শরিক দলের নেতাকর্মীরা।

শনিবার এক বিবৃতিতে হরতাল সফল করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়। বিবৃতিতে সই করেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বাম ঐক্য ফ্রন্টের সমন্বয়ক ও গণমুক্তি ইউনিয়নের আহ্বায়ক নাসির উদ্দীন আহম্মদ নাসু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা শওকত হোসেন আহমেদ, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক সারওয়ার মুর্শেদ, কমিউনিস্ট ইউনিয়নের সানোয়ার ইমরান প্রমুখ।