বাম দলের হরতালে সমর্থন বিএনপির

নিউজ ডেস্ক:    গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম দলের ডাকা আগামীকাল রোববারের আধাবেলা হরতালে বিএনপির নৈতিক সমর্থন থাকবে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে তিনি একথা বলেন।

গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মহানগর দক্ষিণ বিএনপি এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

ফখরুল বলেন, ‘গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির কারণে জনগণের ভোগান্তি বাড়বে কয়েকগুণ। এতে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দামও বাড়বে।’ এ সময় গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত পুনঃবিবেচনা করার গণদাবির কথাও উল্লেখ করেন বিএনপি মহাসচিব।

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য গণঐক্য গড়ে তোলারও আহ্বান জানিয়ে ফখরুল বলেন, ‘দুর্বার আন্দোলনের মধ্য দিয়েই গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবে বিএনপি।’

বিএনপি চেয়ারপারসনকে জামিন না দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে মহাসচিব বলেন, আপনাদের নেতা- অনুসারীদের জামিন দিয়ে দিচ্ছেন। আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দিচ্ছেন না, এটা সম্পূর্ণভাবে বেআইনি। আজকে আমরা খুব পরিষ্কার করে বলতে চাই যে, আমরা আইনসঙ্গতভাবে খালেদা জিয়ার জামিন চাই, তার ‍মুক্তি চাই এবং এ দেশকে আমরা, এ গণতন্ত্রকে আমরা মুক্ত করতে চাই।’

এর আগে গত সোমবার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ৭ জুলাই আধাবেলার জন্য সারা দেশে হরতাল ডাকে বাম গণতান্ত্রিক জোট।

তার আগের দিন রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা দেয়। ঘোষণা অনুযায়ী, গড়ে গ্যাসের দাম বেড়েছে ৩২ দশমিক ৮০ শতাংশ। রান্নাঘরে যাদের গ্যাসের চুলা একটি, তারা এত দিন মাসে বিল দিতেন ৭৫০ টাকা। এখন থেকে গ্যাস বিল বাবদ মাসে তাদের ব্যয় হবে ৯২৫ টাকা। খরচ বাড়ল ১৭৫ টাকা। যাদের বাসায় দুই চুলা, তারা এত দিন বিল দিতেন ৮০০ টাকা। এখন তাদের দিতে হবে ৯৭৫ টাকা।

বাসাবাড়ির গ্যাসের পাশাপাশি যানবাহনে ব্যবহার করা সিএনজির (সংকুচিত প্রাকৃতিক গ্যাস) দামও বেড়েছে। সিএনজির ক্ষেত্রে প্রতি ঘনমিটারে দাম বেড়েছে তিন টাকা। ৪০ টাকার সিএনজি গ্যাসের দাম বেড়ে হয়েছে ৪৩ টাকা।