অবশেষে স্বীকার করলেন মালাইকা

নিউজ ডেস্ক: প্রেম নাকি কখনো বয়স মেনে ক্যালেন্ডার ধরে হয় না। এই বাক্যকে আরও একবার সত্যি প্রমাণ করল বলিউড তারকা মালাইকা আরোরা ও অর্জুন কাপুর জুটি। গতকাল ছিল অর্জুন কাপুরের জন্মদিন। প্রযোজক বনি কাপুর ও মোনা কাপুরের একমাত্র ছেলে অর্জুন কাপুর এদিন পা রাখলেন ৩৪-এ। আর মালাইকা আরোরা বয়সে তাঁর প্রেমিকের চেয়ে মাত্র ১১ বছরের বড়। তবে এসব বয়স তো তাঁদের কাছে কেবলই একটা সংখ্যা।

তখন মালাইকা আরোরা ছিলেন আরবাজ খানের স্ত্রী, সালমান খানের বড় ভাবী। বলিউডের এই ভাইজানের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে তাঁদের বাসায় যেতেন অর্জুন কাপুর। সালমান খানের বোন অর্পিতার সঙ্গে প্রেমও করতেন। এর মাঝেই ঘটল সেই অনিবার্য অবশ্যম্ভাবী অঘটন। কোন দিন কোন মুহূর্তে অর্জুন কাপুর আর মালাইকা আরোরা যে হৃদয় অদল-বদল করলেন, তা হয়তো ধরা পড়েনি কোনো পাপারাজ্জির ক্যামেরায়। তবে কানাঘুষা থেমে থাকেনি।

এর পরের ঘটনা তো সবার জানা। প্রেমিকের জন্মদিন একসঙ্গে কাটানোর জন্য আগেই উড়াল দিয়েছেন নিউইয়র্কে। জন্মদিন উপলক্ষে প্রথমে দুটি ছবি পোস্ট করেছেন। প্রথমটি সেখানকার বাথটাব থেকে পুরো শহর আর আকাশের। সেই ছবিটার ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘উঁচুতে আরও উঁচুতে।’ এই ক্যাপশন দিয়েই কি তিনি প্রেমিককে উইশ করলেন? আর দ্বিতীয় ছবিটি তাঁদের রাতের খাবারের। আর তৃতীয় ছবিটির জন্যই এই লেখার সূত্রপাত।

প্রথমবারের মতো মালাইকা আরোরা তাঁর আর অর্জুন কাপুরের ছবি পোস্ট করেছেন। ছবির দিকে একবার তাকালেই স্পষ্ট হবে, নিউইয়র্কের দিনগুলোতে এই জুটি চুটিয়ে প্রেম করছে। এই ছবিতে হাতে হাত ধরে অর্জুন মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে আছেন মালাইকার দিকে। কালো টি-শার্ট, নীল ডেনিমের প্যান্ট আর তামাটে জুতায় অর্জুন কাপুরকে সাদা আর আকাশি চেক প্যান্ট সুটের মালাইকা আরোরার পাশে দারুণ মানিয়েছে। আর দুজনের চোখেই রয়েছে রোদচশমা। কিন্তু সেই রোদচশমাও তাঁদের চোখে ফুটে ওঠা সঙ্গীর প্রতি অনুভূতিকে আড়াল করতে পারেনি।

আর মালাইকার লেখা ছবিটির ক্যাপশন এই স্থিরচিত্রটিকে দিয়েছে একটা ভিন্ন মাত্রা। মালাইকা লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন আমার পাগলাটে, অসম্ভব মজার আর চমৎকার একজন মানুষ, অর্জুন। ভালোবাসা আর সুখ তোমায় ঘিরে রাখুক।’ এই পোস্টে আবার বলিউড তারকা পরিণীতা চোপড়া, দিয়া মির্জা আর সোফি চৌধুরীরা শুভকামনা জানিয়েছেন এই জুটিকে।

এই ছবি আর ক্যাপশনের মধ্য দিয়েই এত দিনের বরফ গলে পানি হলো। দুপক্ষই এখন নিজেদের প্রেমের কথা স্বীকার করল। এর আগেই ফিল্মফেয়ারে অর্জুন কাপুর প্রথমবারের মতো তাঁদের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন। বলেছেন, ‘আমি তাঁদের (পাপারাজ্জিদের) আমার বাড়ির পাশে বসে থাকতে নিষেধ করেছি। এটা এ জন্য না যে আমরা লুকাতে চাচ্ছি। না। এটা সহজ, সাধারণ আর স্বাভাবিকভাবেই হতে দেওয়া উচিত। আমি চাই না আমার বা তাঁর প্রতিবেশীরা আমাদের জন্য বিরক্ত হোক। আমরা কোনো অপরাধ করিনি। তাই আমাদের লুকিয়ে থাকার কিছু নেই।’