মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ

নিউজ ডেস্ক :    ইরান নিয়ে টান টান উত্তেজনার মধ্যেই মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগনের প্রধান পদে পরিবর্তন আসছে বলে জানালেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই পদে ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শানাহান পদত্যাগ করেছেন। তার স্থলিাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন আর্মি সেক্রেটারি মার্ক এসপার।

মঙ্গলবার সকালে প্যাট্রিক শানাহান পদত্যাগ করেন। তার বিরুদ্ধে পারিবারিক সহিংসতার অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পরই এমন সিদ্ধান্ত আসলো। এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, শানাহান পদত্যাগ করেছেন। যাতে করে তিনি তার পরিবারকে আরও সময় দিতে পারবেন।

ট্রাম্প শানাহানের পদত্যাগের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমি তাকে পদত্যাগ করতে বলিনি। তবে সকালে তিনি এসে বললেন, তার জন্য এটা কঠিন হয়ে পড়েছে।’

শানাহান জানান, গত সোমবার তিনি প্রথম ‘দুর্ভাগ্যজনক’ অভিযোগটির বিষয়ে শুনেছেন।শানাহানের পদত্যাগের বিষয়ে ট্রাম্পের ঘোষণা আসার কয়েক মিনিট পর ওয়াশিংটন পোস্ট শানাহানের সাক্ষাৎকার প্রকাশ করে। এতে তিনি ২০১১ সালের ঘটনা তুলে ধরে জানান, ওই সময়ে তার ১৭ বছর বয়সী ছেলে বেসবলের ব্যাট দিয়ে মাকে আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে ফেলেছিল।

পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে শানাহান এক বিবৃতিতে বলেছেন, অনেক আগের ঘটে যাওয়া তার ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বেদনাদায়ক ঘটনা তুলে আনা হয়েছে। পুরো বিষয়টি ভুলভাবে চিত্রায়ণ করা হয়েছে, যা দুঃখজনক।

তিনি বলেন, পেছনের ফেলে আসা দুঃখজনক স্মৃতি ভুলতে তারা বছরের পর বছর ধরে লড়েছেন। তা নতুন করে খুঁচিয়ে তার তিন সন্তানকে যন্ত্রণার মধ্যে ফেলা হোক, তা তিনি চান না।

সোমবার ওয়াশিংটন পোস্টকে তিনি বলেন, সাবেক স্ত্রীর ওপর এই হামলার কিছু পরই তিনি আইনি প্রক্রিয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন।

ট্রাম্পের হোয়াইট হাউসে যোগ দেওয়ার আগে শানাহান বোয়িং কোম্পানিতে নির্বাহী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ছয় মাস আগে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে জেমস ম্যাটিস পদত্যাগের পর তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন শানাহান।বর্তমানের আর্মি সেক্রেটারি মার্ক এসপার ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে পেন্টাগনপ্রধান হবেন।

৫৬ বছর বয়সী মার্ক এসপের হার্ভার্ড স্নাতক এবং পদাতিক সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। ইরাক যুদ্ধে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে নিয়োজিত ছিলেন। ২০১৭ সাল থেকে তিনি আর্মি সেক্রেটারি।