চীনের সিচুয়ান প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ১২

নিউজ ডেস্ক :     চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সিচুয়ান প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্পে অন্তত ১২ জন নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ১৩৪ জন। গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে সিচুয়ানের চেনজিং কাউন্টিতে ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

চ্যানেল নিউজ এশিয়ার খবরে বলা হয়েছে, ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল রিখটার স্কেলে ৬। এর উৎপত্তিস্থল ছিল সমতলের ১৬ কিলোমিটার গভীরে। ভূমিকম্পে ভবনধসের ঘটনা ঘটেছে। আটকে পড়া ব্যক্তিদের উদ্ধারে কাজ করেছে উদ্ধারকারী দল।

সরকারি সূত্র জানিয়েছে, সিচুয়ান প্রদেশের ইবিনের বাইরে সোমবারের ভূমিকম্পের পর কয়েক ডজন কাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এসব ভবন থেকে চার হাজারেরও বেশি লোককে উদ্ধার করা হয়েছে।

ইবিন সিটি কর্তৃপক্ষ মাইক্রোব্লগিং সাইট ওয়েবুতে জানিয়েছে, চেনজিং কাউন্টিতে ৯ জন নিহত হয়েছে। আর কুইজিয়ান কাউন্টিতে নিহত হয়েছেন তিনজন।

চীনের সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া জানিয়েছে, ভূমিকম্পের পর কয়েকটি মহাসড়কের ভেতর ফাটল দেখা দেয়। এ কারণে ইবিন এবং জুইং কাউন্টি সংযোগকারী একটি প্রধান হাইওয়ে বন্ধ রাখা হয়েছিল।

ভূমিকম্পের পর ৫শ’ এর বেশি উদ্ধারকর্মী উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে। তারা বিভিন্ন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘর ও স্থাপনা তল্লাশি করে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করছে। বেশ কিছু বাড়িঘর ধসে পড়ায় হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কার কথা জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম।

এদিকে মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, মূল ভূমিকম্পের পর আরও কয়েক দফা ভূমিকম্প হয়। মূল ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮।

প্রসঙ্গেত, সিচুয়ান প্রদেশে ভূমিকম্পের ঘটনা নতুন নয়। এর আগে ২০০৮ সালে অঞ্চলটিতে ৭ দশমিক ৯ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে ৮৭ হাজার মানুষ নিহত বা নিখোঁজ হয়।