ড. কামাল হোসেনের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়

বিশেষ প্রতিনিধি: গণফোরাম আয়োজিত ৬ জুন সকাল ১০ টা পবিত্র ঈদুল ফেতর উপলক্ষে “ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়” অনুষ্ঠান ড. কামাল হোসেনের বেইলী রোডস্থ বাসায় অনুষ্ঠিত হয়। ড. কামালের সহিত গণফোরামের সবর্স্তরের নেতাকর্মী, অন্যান্য দল ও পেশাজীবি ব্যক্তিগণ ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। ঈদ শুভেচ্ছার পর গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন নিবার্চন পরবর্তী বিভিন্ন ইস্যুর উপর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন। তিনি বলেন, বরাবরের ন্যায় আমাদের দল মধ্যবর্তী নিবার্চন চায় এবং সেই নিবার্চন চায় যত দ্রুত হবে ততই দেশের জন্য মঙ্গল। তিনি বলেন, সারাদেশের মানুষ ভাল নেই, বিশেষ করে আমাদের দেশের কৃষক-শ্রমিকরা ভাল নেই। তারা এবছর ঈদ উদযাপন করতে গিয়ে অনেকে ঘরের ব্যবহারের জিনিসপত্র বিক্রি করে দিয়েছে। দেশের আইন-শৃংখলা চরম অবনতি এবং খুন, ধর্ষণ, উন্নয়নের নামে লুটপাট বেড়েই চলছে। সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন এবারের ঈদে ঘরমুখো মানুষ সর্বকালের স্বস্তিতে বাড়িতে যাবে। অথচ দেখা গেল দীর্ঘ প্রায় ৪০-৫০কি.মি দীর্ঘ জ্যামে জনদুর্ভোগ চরমে। ট্রেন, লঞ্চ ও বিমানেও শিডিউল বিপর্যয়ে জনগনের ঈদ আনন্দ ম্লান করে দেয়। সরকার এসব বিষয়ে নজর না দিয়ে উন্নয়নের কথা বলে জনগনকে ধোকা দিচ্ছে ।

অন্য এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, আমরা অন্যান্য বিভিন্ন দলসহ ঐক্যফ্রন্টের সকল দলের সহিত আরো সুসংহত হয়ে জনগণকে সাথে নিয়ে গণতন্ত্রকে রক্ষায় সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করবো। এব্যাপারে আমরা আপনাদের(মিডিয়ার) সহযোগিতা চাই। যেমন আজ আপনাদের ব্যাপক উপস্থিতি আমাদের মুগ্ধ করেছে। অনুরূপ সামনের দিনগুলোতে আপনাদের সরব উপস্থিতি আমাদের দলীয় কার্যক্রম ত্বরান্বিত হলে সরকারের টনক নড়বে এবং সকল শ্রেণি, পেশা মানুষকে সাথে নিয়ে চাপ সৃষ্টি করতে পারলে এই অনির্বাচিত সরকারের পতন অবশ্যই ঘটবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ, এডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক লতিফুর বারী হামিম প্রমুখ।