‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ বইটি বাজার থেকে প্রত্যাহার

নিউজ ডেস্ক :   মুক্তিযুদ্ধের ডেপুটি চিফ অব স্টাফ এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) এ কে খন্দকারের বিতর্কিত বই ‘১৯৭১ :ভেতরে বাইরে’ বাজার থেকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে এর প্রকাশনা সংস্থা প্রথমা প্রকাশন। রোববার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে প্রকাশনা সংস্থাটি এ ঘোষণা দেয়।

প্রথমা প্রকাশনের ব্যবস্থাপক জাফর আহমদ রাশেদ স্বাক্ষরিত এ বিবৃতিতে বলা হয়, প্রথমা প্রকাশনা প্রকাশিত ‘১৯৭১ :ভেতরে বাইরে’ বইটি নিয়ে এর লেখক এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) এ কে খন্দকার, বীরউত্তম সম্প্রতি একটি বিবৃতি দিয়েছেন এবং গত শনিবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, এ বইয়ের একটি অনুচ্ছেদে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ সম্পর্কে তিনি একটি ভুল তথ্য পরিবেশন করেছেন। সে ভুল তথ্যসহ পুরো অনুচ্ছেদটি তিনি বইটি থেকে প্রত্যাহার করে নিতে চান। তার বইয়ের যে কোনো অংশ গ্রহণ-বর্জন-পরিমার্জনের পূর্ণঅধিকার তার আছে। লেখকের ইচ্ছার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আমরা বইটি বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

পরে এ বিষয়ে জাফর আহমদ রাশেদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সমকালকে বলেন, এ কে খন্দকার যেহেতু অনুচ্ছেদটি প্রত্যাহার করতে চেয়েছেন, সেহেতু বাজারে থাকা সব বই আমরা উঠিয়ে নিয়েছি। বাজারে ‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ এখন আর পাওয়া যাবে না। পরবর্তী সময়ে বইটি আবারও প্রকাশ হবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

২০১৪ সালের আগস্টের শেষ সপ্তাহে প্রথমা প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হয় এ কে খন্দকারের ‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ বইটি। যার ৩২ নম্বর পৃষ্ঠায় তিনি লিখেছিলেন- বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণ শেষ করেন ‘জয় পাকিস্তান’ বলে। এরপর থেকেই এ নিয়ে বিতর্ক উঠতে থাকে চারপাশে। সেই বিতর্কের মধ্যেই দ্রুত বইটির দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশ পায়। যাতে তিনি লেখেন- বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণ শেষ করেন ‘জয় বাংলা, জয় পাকিস্তান’ বলে। এ নিয়ে বিতর্কের জেরে তিনি সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের চেয়ারম্যান পদ থেকেও পদত্যাগ করেন।

বইটি প্রকাশের প্রায় পাঁচ বছর পর শনিবার সংবাদ সম্মেলন করেন এ কে খন্দকার। ওই লেখার জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চান এবং অনুচ্ছেদটি প্রত্যাহার করে নেন।

প্রথমা প্রকাশনের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, ‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ বইটির দ্বিতীয় সংস্করণের ১৩তম মুদ্রণ সর্বশেষ বাজারে ছিল।