নেইমারের বিরুদ্ধে এবার ধর্ষণের অভিযোগ!

(FILES) In this file photo taken on April 21, 2019 Paris Saint-Germain's Brazilian forward Neymar looks on during the French L1 football match between Paris Saint-Germain (PSG) and Monaco (ASM) at the Parc des Princes stadium in Paris. - Brazil and Paris Saint-Germain forward Neymar on Sunday denied raping a woman who accused him of sexually assaulting her at a Paris hotel, with his father claiming he is the victim of blackmail. (Photo by Anne-Christine POUJOULAT / AFP)

নিউজ ডেস্ক: ফ্রান্সের হোটেল কক্ষে নারীকে ডেকে এনে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ব্রাজিল ফুটবল তারকা নেইমারের বিপক্ষে। এই সংবাদে হতবিহ্বল হয়ে পড়েছে পুরো বিশ্ব। গুরুতর এই অভিযোগ বেশ গুরুত্বের সাথে নিয়েছে দেশটির পুলিশ। তবে পিএসজি তারকা বলছেন, চার দেয়ালে নারী-পুরুষের মধ্যে স্বাভাবিক শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে। ধর্ষণের মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ভিডিও বার্তায় সেই নারীর সাথে কথোপকথনের কিছু চিত্রসহও ভিডিও শেয়ার করেছেন তিনি। নেইমার জানিয়েছেন, এই মেসেজগুলি একান্তই ব্যক্তিগত তবে সেদিন যে ধর্ষণের মতো কিছু ঘটেনি তা প্রমাণ করতে এগুলো জনসম্মুখে আনা দরকার।

ধর্ষণের শিকার ওই নারী অভিযোগ করেছেন যে, গত ১৫ মে রাতে প্যারিসের একটি হোটেলে মদপ্য অবস্থায় তাকে ধর্ষণ করেন নেইমার। সেই ঘটনার দুদিন পর ব্রাজিলের সাও পাওলোতে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন তিনি।

বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলারের বিপক্ষে এমন অভিযোগে নড়েচড়ে বসে ফুটবল বিশ্ব। ফরাসি পুলিশ বিষয়টিকে গুরুত্বে সাথে নিয়েছে। এই ঘটনার পর বেশ অবাক হয়ে যান নেইমার। নিজেকে নির্দোষ প্রমাণে সামাজিক মাধ্যমে বড়সড় এক ভিডিও বার্তা শেয়ার করেছেন তিনি।

ভিডিও বার্তায় নেইমার বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এটা অনেক বড় বিষয়। এটা আমাকে অবাক করেছে। এটা খুবই নোংরা ও দু:খজনক কারণ যারা আমাকে চেনে তারা জানে যে আমি কেমন মানুষ এবং এই ধরণের কাজ আমি করতেই পারি না।’

নেইমার আরো বলেন, ‘সত্যিটা একেবারেই বিপরীত। এই মূহূর্তে আমি সত্যিই বিমর্ষ তাই আমি সেই নারীর সাথে কাটানো সময়গুলো ও কথোপকথন প্রকাশ করতে চাই। এগুলো ব্যক্তিগত; তবে সেদিন কিছুই ঘটেনি সেটা প্রমাণ করতে এগুলোকে জনসম্মুখে আনা ছাড়া আর কোনো পথ খোলা নেই।’

নেইমার বলেন, ‘চার দেয়ালে একজন নারী-পুরুষের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে। পরের দিনও কিছু হয়নি। আমরা মেসেজ আদান প্রদান করতে থাকি। সে তার মেয়ের জন্য কিছু ছবি চেয়েছিল, আমি দিয়েছি আর এখন কিনা এমন অভিযোগ!

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।