টাকা পাচারকারীদের সঙ্গে ক্ষমতাসীনদের সম্পর্ক আছে: ড. কামাল

নিউজ ডেস্ক:  জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশের নাগরিকরা বিদেশ থেকে কষ্ট করে টাকা উপার্জন করে দেশে পাঠায় । আর একটি অসাধু চক্র নামে বেনামে টাকা বিদেশে পাচার করছে ।   তিনি দেশের টাকা বিদেশে পাচারকারীদের বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, টাকা পাচারকারীদের সঙ্গে ক্ষমতাসীনদের সম্পর্ক আছে।

সোমবার বিকেলের রাজধানীর আরামবাগে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গণফোরামের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের এক কর্মিসভা ও ইফতার অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

কামাল হোসেন বলেন, উন্নয়নের কথা বলা হয় কিন্তু কৃষক ধানের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না। পোশাক শ্রমিকেরা তাদের ন্যায্য মজুরি পাচ্ছেন না। তিনি অভিযোগ করে বলেন, দেশের টাকা বাইরে পাচার করে দেওয়া হচ্ছে । উন্নয়নের নামে টাকা পাচার করাকে উন্নয়ন বলা যায় না। পাচার বন্ধ না হলে দেশের উন্নয়নও সম্ভব না।

টাকা পাচারকারীদের বিরুদ্ধে সরকার কেন ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশ্ন করে গণফোরাম সভাপতি বলেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার সঙ্গে যারা যুক্ত তাদের সঙ্গে পাচারকারীদের সম্পর্ক আছে। নয় তো অর্থ পাচারকারীরা এত শক্তিশালী হতে পারত না। টাকা পাচারকারীরা দেশের শত্রু। তিনি এর বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

বগুড়ায় ডাকসুর (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ) ভিপি নুরুল হকের ওপর হামলার নিন্দা জানান ড. কামাল হোসেন। তিনি পুলিশকে হামলাকারীদের খুঁজে বের করতে বলেন।

গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী বলেন, ইফতারের আয়োজন করতে গেলে অনুমতি নিতে হয়। ডাকসু ভিপি নুরুল হককে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইফতার অনুষ্ঠান করতে দেওয়া হয়নি। বগুড়ায় হামলা হয়েছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, মানুষের কর্মসূচি পালনের স্বাধীনতা হরণ করা হচ্ছে।

গণফোরামের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিক, সাংগঠনিক সম্পাদক লতিফুল বারী হামিম প্রমুখ।