মধ্য প্রাচ্যের উত্তেজনা প্রশ্নে কাতারকে সৌদি আরবের আমন্ত্রণ

নিউজ ডেস্ক:  কাতার জানিয়েছে, ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার বিষয় নিয়ে জরুরি আঞ্চলিক বৈঠকে আলোচনা করতে সৌদি আরবের পক্ষ থেকে দোহাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। খবর এএফপি’র।

রিয়াদ বিভিন্ন হামলার প্রেক্ষাপটে দুই দফা বৈঠকের ডাক দিয়েছে। তারা আরব লীগের সদস্যদের নিয়ে একটি এবং আঞ্চলিক জোট গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিলের (জিসিসি) সদস্যভুক্ত দেশগুলোকে নিয়ে আরেকটি বৈঠক ডেকেছে।

উপসাগরীয় জলসীমান্তে থাকা বিভিন্ন ট্যাঙ্কার রহস্যজনক হামলার ঝুঁকিতে রয়েছে। এদিকে সৌদি আরবের তেল সরবরাহের একটি পাইপলাইনে ইয়েমেনের বিদ্রোহীরা ড্রোন হামলা চালিয়েছে। ইরানের নির্দেশেই বিদ্রোহীরা এসব হামলা চালিয়েছে বলে রিয়াদ অভিযোগ করেছে।

বাদশাহ সালমান আগামী ৩০ মে মক্কায় এসব সম্মেলনে উপসাগরীয় নেতা এবং আরব লীগ সদস্যদের আমন্ত্রণ জানান। তবে আরব জোটের আলোচনায় কাতারকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে কিনা সে ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি।

ইরানকে সমর্থন ও জঙ্গিদের মদদ দেয়ার অভিযোগে কাতারকে আদৌ আমন্ত্রণ জানানো হবে কিনা তা অস্পষ্ট ছিল। এদিকে দোহা প্রাথমিকভাবে জানিয়েছিল যে তারা কোন আমন্ত্রণ পায়নি।

সরকারের তথ্য দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, কাতারের আমির এ সংকট নিয়ে আলোচনায় অংশ নেয়ার ব্যাপারে লিখিত আমন্ত্রণ পেয়েছেন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, জিসিসি মহাসচিবের সঙ্গে বৈঠক চলাকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ বিন আব্দুলরহমান আল-থানি এ আমন্ত্রণ পত্র গ্রহণ করেন।

এর আগে থানি ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সৃষ্ট উত্তেজনা নিরসনে তাদের মধ্যে ‘সংলাপের’ আহ্বান জানিয়েছিলেন।