সংস্কৃতি হারিয়ে যাওয়া অর্থ জাতির পরিচয় হারিয়ে যাওয়া: রেলপথ মন্ত্রী

সাহাদাত হোসেন কাজল দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: সংস্কৃতি মানুষের মুল্যবান সম্পদ। একটি জাতির সংস্কৃতি হারিয়ে যাওয়া মানে সে জাতির পরিচয় হারিয়ে যাওয়া। বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলে বসবাসকারী গারো সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় ও সামাজিক উৎসব ওয়ানগালা। বাঙ্গালী জাতি রাষ্ট্রের পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান একটি অসাম্প্রদায়িক মানবিক স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় আজীবন সংগ্রাম করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক চর্চা. তাঁদের ইতিহাস, ঐতিহ্য সংরক্ষনে নানা মুখি কাজ করে যাচ্ছেন। নেত্রকোনার দুর্গাপুরে ২দিন ব্যাপি আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক উৎসবে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রী এডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন এ কথা বলেন।

বিরিশিরি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমী মিলনায়তনে ২দিন ব্যাপি গারো সমাবেশ, মেলা ও সাংস্কৃতিক উৎসব ওয়ানগালা অনুষ্ঠান উদ্ধোধন করেন স্থানীয় সংসদ সংসদ সদস্য মানু মজুমদার। উদ্ধোধনী আলোচনায় নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক মঈন উল ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন, মৎস ও প্রানী সম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু এমপি। অন্যান্যের মধ্যে আলোচনা করেন, একাডেমীর পরিচালক শরদিন্দু সরকার (স্বপন হাজং), নির্বাহী সদস্য এডলফ মারাক, আদিবাসী লেখক ও গবেষক রেভা: মনিন্দ্র নাথ মারাক, আদিবাসী নেতা ভদ্র দ্রং, মৃনাল কান্তি সাংমা, লুদিয়া রুমা সাংমা প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন দুর্গাপুর বাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে জারিয়া থেকে দুর্গাপুর পর্যন্ত রেলপথ সম্প্রসারণ ও সোমেশ্বরী নদীর উপর বিরিশিরি-শিবগঞ্জ সেতুর কাজের প্রকল্প গ্রহণ করবেন বলে আশ্বাস প্রদান করেন।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।