নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড ২৭ এপ্রিল

সুমন দত্ত : দেশ খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জন করলেও রয়েছে পুষ্টি ঘাটতি। শিশুরা এখনো পুষ্টি হীনতায় ভুগছে। শুধু শিশুরাই নয়, সব বয়সের লোকদের মাঝেই আছে পুষ্টি তথা নিউট্রিশন ঘাটতি।

নিউট্রিশন ঘাটতি কীভাবে মেটানো যায় সেই সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে ২৭ এপ্রিল শনিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তৃতীয় বারের মতো শুরু হচ্ছে নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড ২০১৯। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এর আয়োজকরা এসব কথা বলেন।

নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড আয়োজন করছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কয়েকটি মন্ত্রণালয়। যার মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, বিআইআইডি ফাউন্ডেশন। এছাড়া ইউএসএআইডি ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এতে সহায়তা করছে।

বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকদের মাঝে নিউট্রিশন সচেতনতা ছড়িয়ে দিতে এ আয়োজন করা হচ্ছে।

আমরা যেসব খাবার খাই তাতে খাদ্যমান কত? সে সম্পর্কে সম্যক ধারণা পেতে এই অলিম্পিয়াডের আয়োজন। এতে বিভিন্ন খাবারের প্রদর্শনী হবে। এতে অংশ নেবে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র ছাত্রীরা। তাদের মধ্যে খাদ্য সচেতনতা তৈরি করা হবে অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য।

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকানিউজ২৪ডটকম