পরকীয়া প্রেম, বিয়ে অত:পর তরুনিকে অগুন

নাইম রহমান, ঢাকা নিউজ২৪.কম: স্ত্রীর স্বীকৃতি চাওয়ায় লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে শাহিনুর আক্তার নামের যে তরুণীর শরীরে আগুন দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছিল সেই তরুণী মারা গেছেন।
সোমবার সাড়ে ১০ টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।
শাহিনুর আক্তারের সঙ্গে থাকা কমলনগর থানার এসআই মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সমকালকে এ তথ্য জানিয়েছেন।
এর আগে, রোববার বিকেলে কমলনগর উপজেলার চরফলকন ইউনিয়নের আইয়ুবনগর এলাকার একটি সয়াবিন ক্ষেত থেকে শাহিনুরকে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। প্রথমে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য শাহিনুরকে ঢামেক বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহিনুর পুলিশকে জানিয়েছিল, মোবাইল ফোনে সালাহ উদ্দিনের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। একপর্যায়ে প্রায় দেড় বছর আগে কাজী অফিসে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তার স্বামী এক বছর শ্বশুরালয়ে আসা-যাওয়া করলেও স্ত্রীকে কখনোই নিজের বাড়ি নেওয়ার আগ্রহ দেখায়নি। সালাহ উদ্দিন প্রথম স্ত্রী সন্তানের কথা গোপন রাখেন। বিষয়টি জানতে পেরে আমি চট্টগ্রাম থেকে কমলনগরে এসে স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইলে সালাহ উদ্দিন কেরোসিন তেল দিয়ে আমার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়।