রাবিতে পাঁচ দিনব্যাপী বার্ষিক চারুকলা প্রদর্শনী

শাহাবুদ্দীন ইসলাম, (রাবি) প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) পাঁচ দিনব্যাপী বার্ষিক চারুকলা প্রদর্শনী-২০১৯ শুরু হয়েছে। চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগ এ প্রদর্শনীর আয়োজন করে।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় চারুকলা চত্বরের মুক্তমঞ্চে পাঁচ দিনব্যাপী এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্রে শ্রেষ্ঠ ১৮ জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কার দেওয়া হয়। এছাড়াও শিল্পচার্য জয়নুল আবেদিন পুরস্কার, আসাদুল ইসলাম আসাদ পুরস্কারসহ তিন শিক্ষার্থীকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা দেওয়া হয়। রাজশাহী চারু ও চারুকলা মহাবিদ্যালয় অধুনালুপ্ত পরিচালনা পর্ষদের সহ-সভাপতি মহসীন খানকে গুণীজন সম্মাননা দেওয়া হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর আব্দুস সোবহান বলেন, ‘ডিসেম্বর মাসে থার্টি ফাস্ট নাইটসহ অন্যান্য উৎসব তেমন বাঙালি মনে রাখে না। কিন্তু পহেলা বৈশাখ বাঙালি জাতির আত্মার সাথে মিশে আছে। বাঙালির যে চিরাচরিত সংস্কৃতি তাকে ধরে রাখতে চারুকলা অনুষদের যে বিভাগগুলো আছে তারা অনেক সুন্দরভাবে একে উপস্থাপন করে। সমাজের নানা চিত্র তুলে ধরে চারুকলায় ফাস্ট হয়ে উগ্রবাদী না হয়ে সমাজের নানা অসঙ্গতির বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানোর নিরব বিপ্লবের হাতিয়ার হলো চিত্রকলা।’

তিনি আরো বলেন, ‘বাক্য দিয়ে অঙ্ক দিয়ে যা প্রকাশ করা যায় না কিন্তু তা চিত্রের মাধ্যমে প্রকাশ করা যায়। এসব চিত্রের মাধ্যমে সমাজের নানা অসঙ্গতি তুলে ধরে চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরা। সমাজের দুর্দান্ত খারাপ মানুষের যে প্রকাশ তা চিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরে। সমাজের সকল মানুষের চেয়ে তারা সমাজকে আলাদাভাবে দেখে। আগে মানুষে মানুষে ভেদাভেদ করা হতো ছবি আঁকলে পাপ হবে এরকম অজ্ঞতাকে দিয়ে মানুষ ধর্মব্যবসা করছে। এসব ধর্মান্ধতা কাটিয়ে উঠতে না পারলে চারুকলা পড়ে কোনো লাভ নেই। চারুকলা পড়ার কোনো সার্থকতা থাকবে না।’

অনুষ্ঠানে বিভাগের শিক্ষার্থী তাসফিহা তাবাসসুম সুমাইয়ার সঞ্চালনায় ও বিভাগের সভাপতি প্রফেসর সুশান্ত কুমার অধিকারীর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তৃতা করেন সহযোগী অধ্যাপক আবু তাহের। এসময় অন্যদের মধ্যে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই অনুষ্ঠানে চারুকলা প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী কৃতি শিক্ষার্র্থীদের ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করেন। পরে বিভাগের সভাপতি অতিথিবৃন্দদের সাথে নিয়ে চারুকলা প্রদর্শনী ঘুরে দেখান।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।