১১ এপ্রিল ডায়াবেটিস মেলা

সুমন দত্ত: বাংলাদেশে ডায়াবেটিস (বা বহুমূত্র) মহামারি আকার ধারণ করেছে। সব বয়সের লোক এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। প্রতি বছরই দ্বিগুণহারে বাড়ছে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা। বিশ্বে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যার বিচারে বাংলাদেশের অবস্থান নবম স্থানে। এ মহামারী ঠেকাতে কার্যকর ও সমন্বিত উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে সকলকে। এ লক্ষ্যে ডায়াবেটিস সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে শুরু হচ্ছে ডায়াবেটিস মেলা। কংগ্রেসিয়া নামের একটি সংগঠন এই মেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে। আগামী ১১ এপ্রিল দুপুর ২ টায় মেলার শুভ উদ্বোধন হবে।

সম্প্রতি জাতীয় প্রেসক্লাবে এক ঘোষণায় তারা এ কথা বলেন। ডায়াবেটিস প্রতিরোধ এবং নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা আরো বেশি ছড়িয়ে দিতে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘ডায়াবেটিস মেলা’।

ঢাকার খামারবাড়ি, ফার্মগেটে অবস্থিত কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি)-তে আগামী ১১ এপ্রিল দুপুর ২ টায় শুরু হয়ে মেলা চলবে ১৩ এপ্রিল বিকেল ৩ টা পর্যন্ত । তিনদিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগী, তাদের পরিবারের অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ, চিকিৎসক, পুষ্টিবিদ সহ ডায়াবেটিস ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িত যে কেউ অংশগ্রহণ করতে পারবেন। মেলায় অংশগ্রহণ করতে কোন প্রবেশমূল্য লাগবে না। যে কেউ যে কোনো সময় যে কোনো সেশনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

ডায়াবেটিসের যত্ন ও সেবা দানকারী সকল প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ডায়াবেটিস রোগীর যোগাযোগ স্থাপন করা, জনসাধারণকে সম্ভাব্য ডায়াবেটিসের ঝুঁকি সম্পর্কে সচেতন করা, কর্মশালা, বক্তৃতা ছাড়াও হাতে কলমে ডায়াবেটিসের যত্ন ও নিয়ন্ত্রণের শিক্ষাদান এবং সুলভে ডায়াবেটিসের পণ্য ও সেবা একসাথে প্রদানের জন্যই এ ‘ডায়াবেটিস মেলা’ আয়োজন।

এবারের প্রতিপাদ্য বিষয়, ‘ডায়াবেটিস আমার, দায়িত্বও আমার’। ডায়াবেটিস মেলা আয়োজনটি হবে একাধারে উৎসবমুখর এবং শিক্ষামূলক। তবে প্রথাগত শিক্ষার পরিবর্তে উদ্ভাবনী ও অংশগ্রহণমূলক সেশনের মাধ্যমে ডায়াবেটিসের সকল খুঁটিনাটি যেমন, ডায়াবেটিসজনিত কিডনির রোগ, চোখের রোগ, হার্টের রোগ, স্নায়ু রোগ, মানসিক দিক, পুষ্টি, শারীরিক ব্যায়াম ইত্যাদি বিষয়সমুহ অংশগ্রহণকারী যে কেউ জানতে পারবেন দেশের খ্যাতিমান বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মাধ্যমে। মোট ১৪ টি সেশনে ২৫ টি বিষয়ের ওপর প্রায় ৫০ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক সরাসরি আলোচনা ও রোগীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেবেন।

ডায়াবেটিসের অতি সাম্প্রতিক ও ভবিষ্যৎ প্রযুক্তি এবং ঔষধ নিয়েও থাকবে বিশেষ আয়োজন। তাছাড়া ডায়াবেটিসে ব্যবহৃত প্রয়োজনীয় ভিন্ন ভিন্ন ডিভাইসের কার্যকরী ব্যবহার এবং খুঁটিনাটি বিষয়সমূহ হাতে কলমে শেখানো হবে। মেলায় বিনামূল্যে রক্তের সুগার ও চোখ পরীক্ষা করা হবে। ক্রেতাদের জন্য মেলার মূল আকর্ষণ “বিশেষ হ্রাসকৃত মূল্যে পণ্য ক্রয়”। বিশেষমূল্যে উন্নতমানের গ্লুকোমিটার, প্রেশার মাপার মেশিন, ব্যায়ামের মেশিন, বই, খাদ্য দ্রব্য এবং বিভিন্ন হাসপাতালের বিশেষ অফার/প্যাকেজ ইত্যাদি হবে মেলার অন্যতম আকর্ষণ। থাকবে শিক্ষণীয় নানা প্রতিযোগিতা।

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকানিউজ২৪ডটকম