ছাত্রলীগের অবরোধে দ্বিতীয় দিনেও অচল চবি

নিউজ ডেস্ক:   অস্ত্র মামলায় আটক ছাত্রলীগ কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তিসহ চার দফা দাবিতে ছাত্রলীগের ডাকা অবরোধে দ্বিতীয় দিনের মতো অচল ছিলো চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। অবরোধের ফলে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে শাটল ট্রেন ও শিক্ষক বাস বন্ধ রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

অবরোধের দ্বিতীয় দিন সোমবার সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পয়েন্ট মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। অবরোধের ফলে দ্বিতীয় দিনের মতো ক্যাম্পাস ছিলো শিক্ষার্থী শূন্য।

এদিকে কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দেয়া হলে সোমবার বিকেলে অবরোধ প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয় ছাত্রলীগ। উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরীর সঙ্গে ছাত্রলীগের প্রতিনিধি দলের বৈঠক শেষে এ ঘোষণা দেয় অবরোধকারীরা।

এ বিষয়ে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি এনামুল হক আরাফাত বলেন, ৪ দফা দাবি আদায়ে দ্বিতীয় দিনের মতো অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছি। উপাচার্য আমাদেরকে বৈঠকের জন্য ডাকলে আমরা একটি প্রতিনিধি দল পাঠাই। তিনি আমাদের চার দফা দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। তাই আমরা অবরোধ প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন, নিরাপত্তার কারণে শাটল ট্রেন চলাচল ও শিক্ষক বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। আশা করছি মঙ্গলবার থেকে শাটল ট্রেন ও শিক্ষক বাস চলাচল করবে।

চবি ছাত্রলীগের ৪ দফা দাবি- বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরীকে পদত্যাগ করতে হবে; হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীরকে পদত্যাগ করতে হবে; গত ৩ এপ্রিল অস্ত্র মামলায় আটক চবি ছাত্রলীগের ৬ কর্মীকে মুক্তি দিতে হবে এবং ২০১৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে করা সব মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।