সিডনিতে প্রথম বহুজাতিক বৈশাখী উৎসবের আয়োজন

নিউজ ডেস্ক:    সিডনির ক্যাম্বেলটাউন এ্যাথলেটিকস্ স্টেডিয়ামে আগামী ১৩ই এপ্রিল শনিবার দিনব্যাপী এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।

উৎসবের বিভিন্ন আয়োজন নিয়ে ১৭ মার্চ সন্ধ্যায় এক সাংবাদ সম্মেলনে উৎসবের আয়োজনের সকল দিক এবং প্রস্তুতি নিয়ে সংগঠনটির সভাপতি এনাম হক তাঁর সূচনা বক্তব্যে কমিউনিটির এই আয়োজন সফল করতে উপস্থিত সাংবাদিক, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব এবং কমিউনিটি নেতৃবৃন্দকে তাদের সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ প্রদানের আহ্বান জানান। সাংবাদ সম্মেলনে মাল্টিকালচারাল সোসাইটির পক্ষে সাংবাদিকগনের প্রশ্নের জবাব দেন বাংলাদেশী কমিউনিটি নেতা জাহাঙ্গীর আলম, ইসমাইল মিয়া, কাশফি আহাম্মেদ, আশিকুর রহমান এ্যাশ, এ্যানি সাবরিন, পাঞ্জাবী কমিউনিটি নেতা পারমজিত সিং, আমর সিং, নেপালী কমিউনিটি নেতা টুঙ্গানাথ খারেল, নেপালী কমিউনিটি লীডার ঊষা খাদকা, পাকিস্তানি কমিউনিটি নেতা পারভেজ খান, আব্বাস ভাট।

সাংবাদ সম্মেলনের শুরুতে কাউন্সিলর মাসুদ চৌধুরীর প্রস্তাবনায় নিউজিল্যান্ডে গত শুক্রবার মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫০ জনের সম্মানে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

সংবাদ সন্মেলনে জানানো হয়, প্রবাসী বাংলাদেশিসহ শ্রীলংকান ল্যাংগুয়েজ স্কুল, মালিয়ালাম ল্যাংগুয়েজ স্কুল, নেপালী ল্যাংগুয়েজ স্কুল গ্রুপ প্রেজেন্টেশন করবে। সাথে থাকবে পেসিফিক আইল্যান্ডার কমিউনিটি, চাইনিজ কমিউনিটি এবং পাকিস্তানি কমিউনিটির উপস্থাপনা। এছাড়াও থাকবে বাংলা গান ,পাকিস্তানি, ফিলিপিনো এবং নেপালী নাচ। মেলায় থাকবে কাবাডি খেলা বিশেষ আয়োজন। বাংলা কিডস্ গ্রুপ পরিবেশন করবে ডান্স এবং বাংলা ফ্যাশন শো। থাকবে এইট নোটস্, কৃস্টি এবং ধূমকেতুর ব্যান্ড সংগীত। সর্বশেষ থাকবে চোখ ধাঁধানো ফায়ার ওয়ার্কস্। শিশুদের জন্য আকর্ষনীয় রাইডস্ শুধুমাত্র এক ডলার ডোনেশনের বিনিময়ে ফ্রি রাখা হবে। এসবের পাশাাশি মেলায় বিভিন্ন দেশের বাহারী খাবার স্টল থাকার কথাও জানান আয়োজকরা।

সংবাদ সন্মেলনে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়র সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ মানুষের প্রাণহানির প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতিসহ নিজস্ব সিকিউরিটি গার্ড রাখার ব্যাপারে নিশ্চিত করা হয় আয়োজক দের পক্ষ থেকে।