এসিতে ফ্রি সার্ভিসিং দিচ্ছে ওয়ালটন

নিউজ ডেস্ক:   এয়ার কন্ডিশনার বা এসিতে নতুন ক্যাম্পেইন চালু করেছে দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। এ ক্যাম্পেইনের আওতায় ওয়ালটন এসির গ্রাহকদের ফ্রি সার্ভিসিং দেয়া হচ্ছে। এই সুবিধা পেতে মার্চ মাসের ২৬ থেকে ৩১ তারিখের মধ্যে গ্রাহকদের ১৬২৬৭ নম্বরে কল করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

রেজিস্ট্রার্ড গ্রাহকদের পরবর্তীতে সুবিধাজনক সময়ে ওয়ালটনের সার্ভিস এক্সপার্ট কর্তৃক ফ্রি সার্ভিস দেয়া হবে। ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কর্তৃপক্ষ জানায়, ফ্রি সার্ভিসিং এর আওতায় গ্রাহকরা শুধুমাত্র এসি ক্লিনিং সুবিধা পাবেন। তবে, এসিতে কোনো যন্ত্রাংশ প্রয়োজন হলে ওয়ারেন্টি নীতিমালা অনুযায়ী গ্রাহককে সেটির খরচ বহন করতে হবে।

ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের এয়ার কন্ডিশনিং ও রেফ্রিজারেশন বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী আনিসুর রহমান মলিতক বলেন, শীতের কারণে বছরের বেশ কয়েক মাস এসি বন্ধ থাকে বা প্রায় চালানোই হয় না। আবার এসময় বাতাসে ধূলাবালিও থাকে প্রচুর। এতে করে এসির এয়ার ফিল্টারে প্রচুর ধূলাবালি ও ময়লা জমে থাকে। এগুলো পরিস্কার না করে এসি চালু করলে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়াও, বৈদ্যুতিক সংযোগসহ অন্যান্য দিকগুলো ঠিক আছে কিনা সেগুলো পরীক্ষা করে নেয়া উচিৎ। তাই গরমের শুরম্নতে এসি চালানোর পূর্বে দক্ষ টেকনিশিয়ান দিয়ে চেক-আপ এবং সার্ভিসিং করে নেয়া ভালো। এজন্যই এসিতে ফ্রি সার্ভিসিং-এর ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে ওয়ালটন।

এছাড়াও এসি ক্রয়ে বেশ কিছু সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন। দেশব্যাপী চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৪ এ ওয়ালটন এসি কিনে ক্রেতারা পাচ্ছেন পুরো এক বছরের বিদ্যুৎ বিলের টাকা ফ্রি পাওয়ার সুযোগ। পাশাপাশি ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় দেশের যে কোনো ওয়ালটন পতাজা বা পরিবেশক শোরম্নম থেকে এসি কিনে ক্রেতারা পেতে পারেন সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারসহ মোটরসাইকেল, ল্যাপটপ, ফ্রিজ, টিভিসহ অসংখ্য হোম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপতায়েন্সেস ফ্রি।

এদিকে ‘এসি এক্সচেঞ্জ’ অফারের আওতায় ওয়ালটন প্লাজা ও শোরুমে যে কোনো ব্র্র্যান্ডের ব্যবূত পুরাতন এসি জমা দিয়ে ক্রেতারা ওয়ালটনের নতুন এসি কিনতে পারছেন। এক্ষেত্রে পুরনো এসি জমা দিলে গ্রাহক তার পছন্দকৃত নতুন ওয়ালটন এসির মূল্য থেকে ২৫ শতাংশ ছাড় পাচ্ছেন। এছাড়াও, ওয়ালটন এসির সকল গ্রাহক পাচ্ছেন ফ্রি ইনস্টলেশন সুবিধা।

কর্তৃপক্ষ জানায়, ওয়ালটন এর প্রতিটি এসি আন্তর্জাতিক মানের টেস্টিং ল্যাব নাসদাত-ইউটিএস থেকে মান নিয়ন্ত্রণ ছাড়ের পর বাজারজাতকরা হয়। ফলে স্থানীয় বাজারে গ্রাহকপ্রিয়তার শীর্ষে এখন ওয়ালটন এসি। দেশের গন্ডী পেরিয়ে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত ওয়ালটন এসি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানিও হচ্ছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি