এ বছরেই দ্রুততম সময়ের মধ্যে সুষ্ঠু নির্বাচন দিন: ড. কামাল

নিউজ ডেস্ক:  চলতি বছরেই দ্রুততম সময়ের মধ্যে অবাধ ও সুষ্ঠু সংসদ নির্বাচন দিতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে গণফোরাম আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এই দাবি জানান।

সরকারের উদ্দেশে ড. কামাল বলেন, আর দেরি করবেন না, দ্রুত অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বিচনের ব্যবস্থা করুন। প্রয়োজনে ৩-৬ মাসের মধ্যে নির্বাচন দিন। আমরা অতীত নিয়ে বিতর্ক করব না। দেশের সবাই একটি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়। প্রয়োজনে রেফারেন্ডাম দিয়ে দেখতে পারেন। বঙ্গবন্ধুকে অসম্মান করবেন না, তার প্রতি সম্মান দেখিয়ে দ্রুত নির্বাচনের সিডিউল ঘোষণা করুন। যারা সুষ্ঠু নির্বাচনে জনগণের ভোটে প্রকৃত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবেন, তাদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন।

তিনি বলেন, আমরা সংঘাত-সংঘর্ষ চাই না। এটা হলে দেশ অস্থিতিশীল হয়, অর্থনৈতিক উন্নয়ন ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ড. কামাল বলেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হয়েছে এটা মহামিথ্যা কথা। মিথ্যা মিথ্যাই। মিথ্যাকে সত্য বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেই সেটা সত্য হয়ে যায় না। আমরা ভয়াবহ একটা পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি। মানুষ কথা বলতেও ভয় পায়, মনে করে কথা বললে গুম-খুন হয়ে যাবে। গুম-খুনের ভয় দেখিয়ে মানুষকে দাবিয়ে রাখা যাবে না।

গণফোরাম সভাপতি আরও বলেন, সংবিধান অনুযায়ী ক্ষমতা ও দেশের মালিক জনগণ। আজকে মালিকদের মালিকানা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। কারণ মালিকানা ভোগ করার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে নির্বাচন। ২৯ ডিসেম্বর রাতে কি ঘটেছে? ৩০ তারিখ সকালে দেখি বলা হলো- আবার পাঁচ বছরের জন্য আমাদেরকে নির্বাচিত করার জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ। আমি তো খুঁজতেছি কে সেই ভাগ্যবান যে ২৯ তারিখ রাতে ভোট দিতে পেরেছেন। এটাকে প্রহসন নাকি নাটক বলবো। দয়া করে আমাদেরকে আর এই ধরনের নাটকের শিকার করবেন না। আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- অধ্যাপক আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মোহসীন মন্টু, ড. রেজা কিবরিয়া, জগলুল আহমেদ আফ্রিক, মোকাব্বির খান প্রমুখ।