সনদপত্রে ও NID-তে নামের ভুল স‌ংশোধনের জন্য তথ্য পরামর্শ জানুন

সার্টিফিকেট বা NID- কার্ডে নামের ভুল থাকলে কোথায় কিভাবে তা সংশোধন করবেন? তা ভুক্তভুগি অনেকেই যানেন না। কি ভাবে প্রথমে কাজটি শুরু করতে হবে, অনেকেই প্রথমে তথ্যের অভাবে বিপাকে পরতে হয় এবং একই কাজ বার বার করতে হয়, বা সমায় বেশী লাগে। যেমন আপনার নিজ সনদপেত্র বা জাতীয় পরিচয় পত্রে নিজের নাম পিতা/মাতার নাম ভুল আছে তা কিভাবে সংশোধনের কাজটি শুরু করবেন বা আবেদন করবেন?

***** জানুন প্রথমেই কাজটি শুরু করতে হলে যে শিক্ষা বোর্ড থেকে পাশ করছেন বা নির্বাচন কমিশনারের অফিস বা অনলাইন থেকে ফরম সংগ্রহ করুন। তারপর নোটারী পাবলিক দিয়ে বা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট থেকে এফিডেভিট করুন। অত:পর জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করুন। ফরমটি সঠিক ভাবে পুরন করে ছবিসহ অন্যান্য কাগজপত্র সত্যায়িত করুন,  সংশ্লিষ্ট অফিসের নিয়ম অনুযায়ী সোনালী বাংকে ডিডি বা বাংক ড্রাফটের টাকা জমা করুন। অফিস চলাকালিন সময়ে নগদে বা অনলাইনে টাকা জমা করতে পারেন। নিজের নাম পিতা/মাতার নাম সংশোধনের জন্য যথাযথ সাপোটিং কাগজপত্র আবেদন পত্রের সাথে জমা দিতে হবে। অন্যথায় আবেদনটি বাতিল বলে গন্য হবে। শিক্ষা বোর্ড বা নির্বাচন কমিশনারের মাসিক সভায় নাম সংশোধনের আবেদনটি যাচাই বাচাই করে নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্তটি পাশ হবে।

হলফনামা সম্পাদন 
নাম বা জন্মতারিখের ভুল সংশোধনের জন্য প্রথমে আইনজীবীর মাধ্যমে নোটারি পাবলিক  বা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট থেকে এফিডেভিট করাতে হবে।  প্রার্থীর যদি তার মা-বাবার নাম সংশোধন করতে চান, তাহলে নন-জুডিশিয়াল ৩০০/২০০ টাকার স্ট্যাম্পে  প্রার্থীর বাবা,  মাতা  কর্তৃক প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট বা নোটারি পাবলিকের কাছ থেকে এফিডেভিট করতে হবে।

পত্রিকায় বিজ্ঞাপন
হলফনামা সম্পাদনের পর একটি দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিতে হবে। বিজ্ঞপ্তিতে প্রার্থীর সার্টিফিকেট নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম, শাখা, পরীক্ষার সাল, পরীক্ষাকেন্দ্রের নাম, রোল নম্বর, বোর্ডের নাম এবং জন্মতারিখ উল্লেখ করে যা সংশোধন করতে চান (প্রার্থীর নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম বা জন্মতারিখ) তা সংক্ষেপে উল্লেখ করতে হবে।

আরো বিস্তারিত তথ্য পরামর্শে জানতে ও সঠিক ভাবে এফিডেভিট ও পত্রিকা বিজ্ঞপ্তি করানোর জন্য যোগাযোগ করতে পারেন। এই কাজে সেবা দানকারী একমাত্র অভিজ্ঞ প্রতিষ্ঠান : দিগন্ত ইনফরমেশন মিডিয়া। প্রতিষ্ঠানের পরিচালক  গনমাধ্যম কর্মী নাইম রহমানের নিকট “ঢাকা নিউজ ২৪.কম” যানতে চাইলে  তিনি জানান সচ্ছতার সাথে দুই হাজার ছয় সাল থেকে  এই সেবা শুরু করেন। কারন তিনি নিজের কাজ করতে গিয়ে তথ্যের অভাবে নিজেই ভোগান্তিতে পরেন। পরবর্তিতে নিজে উক্ত সেবাটি ভুক্তভোগি মানুষের কথা চিন্তা করে চালু করেন, এখন দীর্ঘ দিন পর সেবার কাজ তার পেশায় পরিনত হয়েছে। মানুষকে সঠিক ভাবে পরামর্শ দিয়ে তিনি পত্রিকার বিজ্ঞাপন ও এফিডেভিটের কাজটি করে থাকেন।

বর্তমানে তিনি মতিঝিলে একটি পত্রিকার অফিসে নিউজ, উপ এডিটর এর কাজ করেন। উক্ত কাজ করানোর বা পরামর্শের জন্য তার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। মোবা:01865211381, imo:01718-805381, facebook: naimrahman71@gmail.com,/ফেজবুকপেজ:-দিগন্ত ইনফরমেশন মিডিয়া।https://www.facebook.com/Diganta-info-%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%97%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4-%E0%A6%87%E0%A6%A8%E0%A6%AB%E0%A6%B0%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A6%A8-%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A6%BE-762159573922361/?ref=bookmarks

ঢাকা নিউজ২৪কম, রিপোর্টার