বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের আচরণে তৃণমূলের কর্মীরা হতাশ

সুমন দত্ত: ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে বিএনপিকে রাজপথের আন্দোলনে নামতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের আন্দোলনের প্রতি বিমুখতা দেখে তৃণমূলের কর্মীরা হতাশ হচ্ছে।

রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলা হয়। আলোচনা সভার আয়োজন করে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন নামের একটি সংগঠন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শামসুজ্জামান দুদু। সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বিএনপি ও ছাত্রদলের ঢাকা মহানগরীর নেতারা বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বন্দি করে রেখেছে সরকার। এই সরকার খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেবে না। তাদের কাছে মুক্তি প্রার্থনা করে কোনো লাভ নেই। বিএনপির উচিত রাজপথে আন্দোলন করে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা। আর সেটা শুরু করতে হবে খালেদা জিয়ার মুক্তি আদায় করে। দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা কেন রাজপথের আন্দোলনের ডাক দিচ্ছেন না। বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের আচরণ দেখে তৃণমূল হতাশ।

বর্তমান সরকার আজীবন ক্ষমতায় থাকবে এমন মন মানসিকতা নিয়ে বসে আছে। ক্ষমতা চিরকাল থাকে না। একদিন এই সরকারকে বিদায় নিতে হবে।

এদিন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিবুন নবী খান সোহেল, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, শহীদুল ইসলাম বাবু, শেখ মোহম্মদ শামীমসহ বহু রাজবন্দিদের মুক্তি চেয়ে বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানে আসা নেতা কর্মীরা। তাদের অভিযোগ সরকার মিথ্যা মামলায় ফাসিয়ে বিএনপির রাজনীতিবিদদের জেলে ভরে রেখেছেন।

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকানিউজ২৪ডটকম