দোল পূর্ণিমা উপলক্ষে দোলযাত্রা বা দোল উৎসব চলছে

নিউজ ডেস্ক:  দোলযাত্রা বৃহস্পতিবার। হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় এই উৎসবটি শ্রীকৃষ্ণের দোলযাত্রা নামে অধিক পরিচিত। দোল পূর্ণিমা উপলক্ষে আয়োজিত এ উৎসবে ভক্তরা সৃষ্টিকর্তার কাছে ন্যায়ের বিজয় ও অন্যায়ের বিনাশ প্রার্থনা করেন।

দ্বাপর যুগ থেকে শ্রীকৃষ্ণের এ দোলযাত্রা বা দোল উৎসব চলে আসছে। পুষ্পরেণুর মাধ্যমে রাধা-কৃষ্ণ দোল উৎসব করতেন। সময়ের বিবর্তনে পুস্পরেণু ‘আবির’ নামের লাল রঙের এক ধরনের পাউডারে রূপান্তরিত হয়েছে।

বাংলাদেশের সব মত ও পথের হিন্দুরাও দোল উৎসব পালন করে। উৎসবটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, মাদ্রাজ, উড়িষ্যা প্রভৃতি স্থানে দোল উৎসব এবং উত্তর, পশ্চিম ও মধ্য ভারতে ‘হোলি’ নামে পরিচিত। এ উৎসবকে বসন্ত উৎসবও বলা হয়।

দোলযাত্রা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রায় বৃহস্পতিবার সারাদেশে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করবে। অনুষ্ঠানমালায় আছে, পূজা, হোমযজ্ঞ, প্রসাদ বিতরণ প্রভৃতি। মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি দোল উৎসবের অনুষ্ঠানমালায় সকাল ৭টায় ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির মেলাঙ্গনে পূজা, আবির খেলা ও কীর্ত্তন এবং দুপুরে প্রসাদ বিতরণের আয়োজন করবে।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত, সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী, মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি শৈলেন্দ্র নাথ মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কিশোর রঞ্জন মণ্ডল বিবৃতিতে দোল পূর্ণিমা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়সহ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।