গ্যাসের দাম বাড়লে যথাসম্ভব প্রতিবাদ: ফখরুল

নিউজ ডেস্ক:  বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জনগণ মেনে নেবে না। বিএনপিও মানবে না। গ্যাসের দাম বাড়লে যথাসম্ভব প্রতিবাদ করা হবে।

রোববার নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের যৌথ সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। সভায় স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাত দিনের কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেয় বিএনপি।

সরকারি বিতরণ কোম্পানিগুলো লাভে থাকলেও বাসাবাড়িতে এক চুলার গ্যাসের দাম ৭৫০ থেকে বাড়িয়ে এক হাজার ৩৫০ এবং দুই চুলার দাম এক হাজার ৪৪০ টাকার প্রস্তাব করা হয়েছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) গণশুনানিতে। তবে শুনানিতে ভোক্তা, জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ও ব্যবসায়ীরা এ প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছেন। মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকার অনির্বাচিত, তাই জনগণের দুঃখ-দুর্দশা নিয়ে চিন্তিত নয়। আখের গোছাতে গ্যাসের দাম বাড়াচ্ছে।

গত সপ্তাহে প্রকাশিত মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের মানবাধিকার প্রতিবেদনকে ‘সঠিক’ দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, শুধু স্টেট ডিপার্টমেন্টের মানবাধিকার সেল নয়, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আলজাজিরা, বিবিসি, গার্ডিয়ান, ওয়াশিংটন পোস্ট, নিউইয়র্ক টাইমস প্রত্যেকেই খবর দিয়েছে, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে জনগণের ইচ্ছা ও মতামতের প্রতিফলন হয়নি। তারা ভোটই দিতে পারেনি। ভারতীয় পত্রপত্রিকাগুলোতেও বলা হয়েছে, নির্বাচন হয়নি।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম একাদশ সংসদ নির্বাচনের সমালোচনা করলেও দেশীয় গণমাধ্যমে তেমন খবর নেই জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশে মিডিয়ার ওপর প্রচণ্ড সেন্সরশিপ রয়েছে। তারপরও যতটুকু সম্ভব তারা এ নিয়ে কথা বলছেন। গণমাধ্যমকে ধন্যবাদ দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বিরূপ পরিবেশের মধ্যেও গণমাধ্যমকর্মীরা কাজ করছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ।