ময়মনসিংহে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসসিংহ : সারা দেশের ন্যায় ময়মনসিংহ বিভাগে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন-২০১৯ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। ময়মনসিংহ জিলাস্কুল, বিদ্যাময়ী বালিকা বিদ্যালয়, হলি ফ্যামিলি স্কুলসহ বিভাগের বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল মাদরাসায় স্টুডেন্ট কেবিনেট এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতি প্রতিষ্ঠানে ৮জন করে প্রতিনিধি নির্বাচিত করেছে সহপাঠী শিক্ষার্থী ভোটাররা।

গতকাল সকালে ময়মনসিংহ শহরের ভাটিকাশর হলি ফ্যামিলি স্কুলের স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের প্রধান নির্বাজন কমিশনার দশম শ্রেণীর ছাত্রী সানজিদা জান্নাত শ্রাবনী জানান এই স্কুলে ২৮৩জন ভোটার ৮জন প্রতিনিধি নির্বাচনের জন্য ভোটাধিকার প্রয়োগ করছে। ৮টি পদের জন্য ১৫জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছে। স্কুলের নির্বাচনে সার্বিক সহযোগিতার করেছেন হলি ফ্যামিলি স্কুলের প্রধান শিক্ষক সিস্টার শান্তি গমেজ। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোট প্রদানের সময়সূচী ছিলো।

শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণতন্ত্র চর্চা তৈরি করতে ‘স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের’ আয়োজন করা হয়। এর মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণতন্ত্র চর্চাসহ একে অপরকে সহযোগিতা করা, শ্রদ্ধা প্রদর্শন, শতভাগ শিক্ষার্থী ভর্তি ও ঝড়ে পড়া রোধে সহযোগিতা, পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ নিশ্চিতসহ ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও সহশিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত হয়। প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ সংরক্ষণ- বিদ্যালয়, আঙিনা ও টয়লেট পরিষ্কার এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, পুস্তক ও শিক্ষণ সামগ্রী, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও সহপাঠ কার্যক্রম, পানিসম্পদ, বৃক্ষ রোপণ ও বাগান তৈরি ইত্যাদি দিবস ও অনুষ্ঠান উদযাপন, অভ্যর্থনা ও আপ্যায়ন এবং আইসিটি এই ৮টি প্রধান দায়িত্বে আটজন নির্বাচিত প্রতিনিধি দায়িত্ব পালন করবেন।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দের ৮ আগস্ট পরীক্ষামূলক প্রথমবারের মতো মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ধারাবাহিকভাবে প্রতিবছর এ নির্বাচন হয়ে আসছে। মন্ত্রী বলেন, শিশুকাল থেকে গণতন্ত্রের চর্চা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়াসহ কয়েকটি উদ্দেশ্য নিয়ে এ নির্বাচন করা হচ্ছে।
গত ২ মার্চ স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ২০১৯ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওইদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা থাকায় তা স্থগিত করে ১৪ মার্চ নতুন দিন ঠিক করা হয়েছে।

জানা যায়, শিক্ষার্থীদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হবে আট সদস্যের স্টুডেন্টস কেবিনেট। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির যেকোনো ছাত্রছাত্রী নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবে। একজন ভোটার সর্বোচ্চ আটটি ভোট দেবে। এর মধ্যে প্রতি শ্রেণিতে একটি করে এবং যেকোনো তিন শ্রেণিতে সর্বোচ্চ দুটি করে ভোট দিতে পারবে। প্রতি শ্রেণি থেকে একজন করে প্রতিনিধি নির্বাচিত হবে। পাঁচ শ্রেণিতে পাঁচজন নির্বাচনের পর তাদের মধ্য হতে সর্বোচ্চ ভোটপ্রাপ্ত তিনজন নির্বাচিত হয়।
স্টুডেন্টস কেবিনেটের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা প্রথম সভায় একজন প্রধান প্রতিনিধি মনোনীত করবে। একই সঙ্গে প্রত্যেকের দায়িত্ব বণ্টন এবং সারা বছরের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করবে। পাশাপাশি প্রতিটি শ্রেণি থেকে দু’জন করে সহযোগী সদস্য মনোনীত করতে হবে, যারা নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সহায়তা করবে। তাদের ভোটাধিকার থাকবে না।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ।