নরেন্দ্র মোদিকে ধর্মান্ধ আখ্যা দিলেন ইমরান খান

নিউজ ডেস্ক:   ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ‘ধর্মান্ধ’ আখ্যা দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, মোদির মতো ধর্মান্ধদের কারণেই আজ ভারত-পাকিস্তান পৃথক রাষ্ট্র। শুক্রবার (৮ মার্চ) পাকিস্তান নিয়ন্ত্রণাধীন থার মরুভূমি এলাকায় এক জনসভায় তিনি এই মন্তব্য করেন। পাকিস্তান ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম দ্যা ডনের একটি প্রতিবেদনে এই তথ্য দেওয়া হয়।

ওই জনসভায় ইমরান খান বলেন, ‘১৯৪৭ সালে দেশভাগের আগে মোদির মত মানুষদের জন্যই সাম্প্রদায়িক সংঘাতের সৃষ্টি হয়েছিল। তার মতো মানুষদের প্ররোচনার কারণেই এখানকার মুসলমানরা পৃথক রাষ্ট্র গঠনের দাবি তুলতে বাধ্য হয়েছিল। ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের অগ্রদূত মহাত্মা গান্ধী মোদির মতো ধর্মান্ধদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েই অনশন করেছিলেন। আর এখন সেই দেশের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে জিততে মোদি ঘৃণা আর যুদ্ধের রাজনীতিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছেন। মোদি সরকার ভারতের সংখ্যালঘু মুসলমানদেরদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। তবে আমার সরকার পাকিস্তানের হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে’।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামা হামলা নিয়ে ইমরান খান বলেন, ‘পুলওয়ামায় হামলার পর অপরাধীদের শনাক্তে পাকিস্তানের প্রস্তাবে ইতিবাচক সাড়ার পরিবর্তে কাশ্মীরের বাসিন্দাদের জীবন দুর্বিষহ করে ফেলেছে ভারত। তারা কোনো ধরণের দুর্ভাগ্যজনক পদক্ষেপ নিলে সশস্ত্র বাহিনী এবং পাকিস্তানের জনগণ যথাযথ জবাব দেওয়ার জন্য সর্বাত্মক প্রস্তুত রয়েছে। আমরা দুর্বল নই, তবে এখন ভারতের বিরুদ্ধে নয় দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মনোযোগ দিতে চাই আমরা’।

জনসভায় বক্তৃতাকালে ভারতকে অতি উত্তেজিত হয়ে দুই পারমাণবিক শক্তিধর দেশকে যুদ্ধের দিকে ঠেলে না দেওয়ার পরামর্শ দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।