মোদিকে ‘গব্বর সিং’ বললেন মমতা

নিউজ ডেস্ক: গব্বর সিং ছিলেন দর্শকনন্দিত হিন্দি ছবি ‘শোলে’–এর ভিলেন—ডাকাত সর্দার। তাঁর অত্যাচারে কাঁপত গোটা এলাকা। এবার সেই গব্বর সিংয়ের সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তুলনা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। শুধু তুলনার মধ্যেই থেমে নেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তিনি মোদির নতুন নামও দিয়েছেন—গব্বর সিং।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যোগ দিয়েছিলেন হাওড়ার আড়ুপাড়ায় দলীয় এক সমাবেশে। সেখানেই তিনি একহাত নেন বিজেপি ও মোদি-অমিত শাহ জুটিকে।

মমতা বলেন, ‘এবার আমরা মোদি-অমিত শাহর সাইনবোর্ড উঠিয়ে দেব। ওরা গেলে দেশ বাঁচবে।’

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, মেয়াদ ফুরিয়ে গেলে সেই ওষুধ খেলে কোনো কাজ হয় না। তেমনই বিজেপি সরকারের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।

মমতা জোরের সঙ্গে বলেন, সারা দেশে বিজেপি শ্রেণিবিন্যাস করছে। বিভেদ তৈরি করছে। ঘৃণা-বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে। সন্ত্রাসবাদের সিন্ডিকেট বানিয়েছে।

মমতা প্রশ্ন রাখেন, ‘কখনো এমনটা হয়েছে যে দেশের কোনো প্রধানমন্ত্রীকে এতটা ভয় পান? এ যেন সেই গব্বর সিং। ওদের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতেই হবে।’

বিজেপি সম্পর্কে মমতা বলেন, ‘ভোটের আগে ওরা ভাঁওতাবাজি করে। এটা করব, ওটা করব বলে। ভোট ফুরালেই সব শেষ।’

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর বিজেপির ভূমিকা প্রসঙ্গ মমতা বলেন, ‘কখনো ওরা মিসাইল দেখাচ্ছে। কখনো বোমা দেখাতে হচ্ছে। কখনো বন্দুক দেখাতে হচ্ছে। কখনো জওয়ানদের রক্ত নিয়ে রাজনীতি করছে। লজ্জা করে না ওদের!’

মমতা বলেন, একজনকে কিছুদিনের জন্য বোকা বানিয়ে রাখা যায়। কিন্তু চিরদিনের জন্য রাখা যায় না।

মমতা এদিন বলেন, ‘ভারতে নোট বাতিলের প্রতিবাদ করেছিলাম। বলেছিলাম, নোট বাতিলের প্রভাব হবে নেতিবাচক, সুদূরপ্রসারী। তা–ই হয়েছে। নোট বাতিলের পর দেশের দুই কোটি তরুণ-তরুণী চাকরি হারিয়েছেন। ১২ হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছেন।’