তৃতীয় টেস্টে ফিরতে পারেন সাকিব

নিউজ ডেস্ক: ইনজুরির কারণে লম্বা ছুটিই পেলেন সাকিব। ছুটির সদ্ব্যবহার করে আমেরিকায় শ্বশুরবাড়ি ঘুরেও এসেছেন। রোববার রাতে নামেন ঢাকায়। পরদিন রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে সাকিব তার চোটাক্রান্ত আঙুলের এক্স-রে করান। আজ মঙ্গলবার রিপোর্ট পাওয়ার কথা আছে। ওই রিপোর্ট দেখেই বোঝা যাবে তার অবস্থা। নিউজিল্যান্ডে কোন টেস্ট খেলতে পারবেন কিনা বোঝা যাবে এরপরই।

রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে নারাজ বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। তবে এখনও যেহেতু তার আঙুলের এক্স রে রিপোর্ট পাওয়া যায়নি, দ্বিতীয় টেস্ট খেলার কোন সুযোগই নেই সাকিবের। একটি সূত্রে জানা গেছে, যদি আঙুলের অবস্থা ভালো হয় এবং আগামী ক’দিনের মধ্যে নিজেকে প্রস্তুত করতে পারেন, তাহলে নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় টেস্টে দেখা যেতে পারে সাকিবকে। ১৬ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে শুরু হবে তৃতীয় টেস্ট।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট অপারেশনস চেয়ারম্যান আকরাম খানও জানিয়েছিলেন, তৃতীয় টেস্টে তার ফেরার সম্ভাবনার কথা। আঙুলের চোট সেরে গেলেও এই ক’দিনে টেস্ট খেলার মতো ফিটনেস পাবেন সাকিব? খেলাটা নিউজিল্যান্ডে বলেই শঙ্কাটা আরও বেশি। সাকিব অবশ্য গত বছর উইন্ডিজের বিপক্ষে আঙুলের চোট থেকে উঠেই খেলেছেন। এশিয়া কাপেও চোট নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু পুরোপুরি চোটমুক্ত না হওয়ার খেসারত তাকে দিতে হয়েছে।

সর্বশেষ ৮ ফেব্রুয়ারি বিপিএলের ফাইনালে ব্যাটিংয়ের সময় থিসারা পেরেরার বাউন্সে বাঁ-হাতের অনামিকায় চোট পান সাকিব। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন জানিয়েছেন, সাকিব তাকে বলেছেন আঙুলের ব্যথা অনেকটাই কমে এসেছে। তবে এক্স-রে রিপোর্ট দেখে চিকিৎসকরা যে সিদ্ধান্ত দেবেন, সে অনুযায়ী সবকিছু হবে।

এদিকে সাকিবের আইপিএল খেলা নিয়েও কথা উঠছে। ১৮ মার্চ থেকে শুরু হবে আইপিএল। হায়দরাবাদের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার তিনি। নিউজিল্যান্ডে শেষ টেস্ট খেললে আইপিএলের শুরুর ক’টা ম্যাচ মিস করবেন সাকিব। সাকিব ঘরোয়া ক্রিকেট প্রিমিয়ার লিগ খেলবেন নাকি আইপিএল তা নিয়েও প্রশ্ন আছে। ৮ মার্চ থেকে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ শুরু হবে। সাকিবের আইপিএল খেলা নিয়ে অবশ্য খুব একটা আপত্তি নেই বিসিবির।