জানুয়ারিতে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স দেশে এসেছে

নিউজ ডেস্ক:  চলতি বছরের জানুয়ারিতে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স দেশে আসলেও ফেব্রুয়ারিতে কিছুটা প্রবাহ কমেছে। তবে গত বছরের একই সময়ের চেয়ে বেড়েছে প্রায় ১৭ কোটি মার্কিন ডলার।

গত জানুয়ারি মাসে প্রবাসীরা রেকর্ড পরিমাণ (১৫৯ কোটি মার্কিন ডলার) রেমিট্যান্স পাঠায় দেশে। ফেব্রুয়ারি মাসে তা কিছুটা কমে নেমে আসে ১৩১ কোটি ৭৭ লাখ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশ ব্যাংকের ফেব্রুয়ারি মাসের হালনাগাদ তথ্য থেকে এ চিত্র ফুঠে উঠেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৩৭ কোটি ৯৭ লাখ ডলার। একই বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে রেমিট্যান্স আসে ১১৪ কোটি ৯০ লাখ ডলার। গত বছরের প্রথম দুই মাসে রেমিট্যান্স আসে ২৫২ কোটি ৮৭ লাখ মার্কিন ডলার।

অন্যদিকে, চলতি বছরের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে রেমিট্যান্স আসে যথাক্রমে ১৫৯ কোটি ও ১৩১ কোটি ৭৭ লাখ মার্কিন ডলার। এই দুই মাসে মোট রেমিট্যান্স আসে ২৯০ কোটি ৭৭ লাখ মার্কিন ডলার। গত জানুয়ারি মাসে এ যাবৎকালের এক মাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স আসে। এর আগে প্রবাসীরা এক মাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিল ২০১৪ সালের জুলাই মাসে। ওই সময়ে দেশে রেমিট্যান্স আসে ১৪৯ কোটি ২৪ লাখ মার্কিন ডলার।

সূত্র জানায়, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে প্রথম আট মাসে অর্থাৎ গত জুলাই-১৮ থেকে ফেব্রুয়ারি-১৯ পর্যন্ত সময়ে প্রবাসীরা দেশে ১ হাজার ৩৫ কোটি ১৩ লাখ ডলার দেশে পাঠিয়েছেন। এটি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের একই সময়ে রেমিট্যান্স আসে ৯৪৬ কোটি ১১ লাখ মার্কিন ডলার। ফলে আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে রেমিট্যান্স প্রবাহ বেড়েছে প্রায় ৯০ কোটি মার্কিন ডলার বা ১০ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ক্যালেন্ডার বছর হিসাবে, ২০১৮ সালে দেশে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স আসে ১ হাজার ৫৫৩ কোটি ৭৮ লাখ মার্কিন ডলার। ২০১৭ সালে ১ হাজার ৩৫৩ কোটি মার্কিন ডলার। ২০১৬ সালে ১ হাজার ৩৬১ কোটি মার্কিন ডলার এবং ২০১৫ সালে রেমিট্যান্স প্রবাহ ছিল ১ হাজার ৫৩১ কোটি মার্কিন ডলার।

অন্যদিকে, অর্থবছর হিসাবে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে দেশে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স আছে ১ হাজার ৫৩১ কোটি ৬৯ লাখ ডলার, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১ হাজার ৪৯৩ কোটি ডলার, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ১ হাজার ২৭৬ কোটি ৯৪ লাখ ডলার, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১ হাজার ৪৯৮ কোটি ডলার। চলতি অর্থবছরের প্রথম আট মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ১ হাজার কোটি ৩৫ কোটি ১৩ লাখ ডলার।

উল্লেখ্য, বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এক কোটির বেশি বাংলাদেশি অবস্থান করেছেন। এইসব প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স জিডিপিতে অবদান রেখেছে ১২ শতাংশের বেশি। বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী রেমিট্যান্স পাঠানোর শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে প্রথমে রয়েছে সৌদি আরব। এরপর পর্যায়ক্রমে রয়েছে আরব আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র, মালয়েশিয়া, কুয়েত, ওমান, যুক্তরাজ্য, কাতার, ইতালি ও বাহরাইন।