ওআইসির সম্মেলনে সুষমা ইন কুরেশি আউট

সুমন দত্ত: মুসলিম দেশগুলো নিয়ে গড়া ওআইসির সম্মেলনে নতুন চমক ভারতের। সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে ভারত গেষ্ট অব অনার নিয়ে যোগ দিলে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি অনুষ্ঠান বয়কট করে।

কুরেশি ওআইসিকে আগেই জানিয়ে রাখছিলেন ভারত যোগ দিলে তিনি এই সম্মেলনে অংশ নেবেন না। তার বদলে নামকা ওয়াস্তে জুনিয়ার কূটনীতিকরা যোগ দিয়ে অনুষ্ঠানের নিয়ম রক্ষা করবেন। তাই ভারতকে দেয়া ওআইসির আমন্ত্রণপত্র প্রত্যাহার করা হোক।

পাকিস্তানের আশা ছিল ওআইসি পাকিস্তানের এই আবদার মানবে। কারণ ইতিপূর্বে পাকিস্তানের কথা মত ওআইসি ভারতকে অনুষ্ঠানে আসতে নিষেধ করেছিল। কিন্তু কালের বিবর্তনে পাকিস্তানের সেই মর্যাদা কেড়ে নিয়েছে ভারত। ইসলামিক দেশগুলোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তোলায় বিশেষ করে সৌদি আরবের মত দেশগুলো ভারতের দিকে ঝুঁকে পড়ায় পাকিস্তান আজ ওআইসিতে একা ভারত বিরোধী। কেউ নেই পাকিস্তানের পাশে। এমনকি সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দেয়ার কারণে বিশ্ব থেকে আলাদা হয়েছে পাকিস্তান। দেশটির সাবেক কূটনীতিক হুসেন হাক্কানী এ কথা বলেন।

অগত্যা সুষমা স্বরাজকে সাদরে আমন্ত্রণ জানিয়ে ওআইসি ভারতকে স্বীকৃতি দিল। সংখ্যার বিচারে ভারতে বসবাসকারী মুসলিম বিশ্বে তৃতীয়। তাই ওআইসিতে ভারতের গুরুত্ব এড়াতে পারেনি সদস্য দেশগুলো। তাছাড়া মুসলিম দেশগুলোতে ভারতের বিশাল বিনিয়োগ রয়েছে। আছে বিশাল বাজার।

প্রচুর ভারতীয় মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে কাজ করে। মধ্যপ্রাচ্যে দেশগুলো নিজেদের মধ্যে যুদ্ধে লিপ্ত হলেও প্রত্যেক দেশের সঙ্গে শক্তিশালী সম্পর্ক গড়ে তুলেছে ভারত। অন্যদিকে পাকিস্তান জঙ্গিবাদের জড়িয়ে পড়ায় অথনৈতিকভাবে পঙ্গু রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। তাই এক কালের ওআইসির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রাষ্ট্র পাকিস্তান আজ সংগঠনটিতে অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েছে।

সূত্র. বিবিসি, রয়টার্স, টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্থান টাইমস, জি নিউজ, পোস্টকার্ড, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস