মিয়ানমারের মানচিত্রে সেন্টমার্টিন, রাষ্ট্রদূতকে তলব

নিউজ ডেস্ক:   চার মাসের ব্যবধানে ঢাকায় নিযুক্ত মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত রাষ্ট্রদূত অং খোয়াকে আবারো তলব করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশের সেন্টমার্টিন দ্বীপকে মিয়ানমার নিজেদের মানচিত্রে দেখানোয় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার দক্ষিণ এশিয়া অণু বিভাগের মহাপরিচালক এম দেলোয়ার হোসেন মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এ বিষয়ে প্রতিবাদপত্র হস্তান্তর করেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বাংলাদেশের সেন্টমার্টিন দ্বীপকে নিজেদের মানচিত্রে অন্তর্ভূক্ত দেখানোয় তাকে (মিয়ানমার রাষ্ট্রদূত) বিকেল সাড়ে ৩টায় মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অনুবিভাগের মহাপরিচালক দেলোয়ার হোসেন তাকে তলব করেন। এ সময় সেন্টমার্টিন দ্বীপকে কেন তাদের একটি সরকারি দফতরের মানচিত্রে দেখানো হয়েছে, তা জানতে চাওয়া হয়। তার হাতে একটি কূটনৈতিক প্রতিবাদপত্র হস্তান্তর করা হয়েছে।

দেলোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, এর আগে গত ৬ অক্টোবর ঢাকায় নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত লুইন উ কে একই বিষয়ে তলব করা হয়েছিল। তখন আমরা তীব্র প্রতিবাদ করে ওই মানচিত্রের সংশোধনী দেওয়ার কথা বলি। বাংলাদেশের চাপের মুখে তখন তারা সেটি সংশোধন করে। এরপরেও ফেব্রুয়ারি মাসে দেশটির আরেকটি ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সমুদ্রসীমার কিছু অংশকে নিজেদের মানচিত্রে দেখিয়েছে মিয়ানমার।

তিনি বলেন, আমরা তাদের বলেছি অবিলম্বে এই ভুল সংশোধন করতে। এরপর মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত আমার এখান থেকেই তাদের দেশে যোগাযোগ করেছে। শুক্রবার তাদের কর্মদিবস রয়েছে। আগামী কালকের ভেতরেই তারা মানচিত্রের ভুল ঠিক করে দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।