লোকসভা নির্বাচন: বাম-কংগ্রেস-তৃণমূল ঐক্যের ঘোষণা মমতার

নিউজ ডেস্ক:  ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিজেপিকে ঠেকাতে বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসের সঙ্গে ঐক্য’র ঘোষণা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বুধবার দিল্লির যন্তরমন্তর ময়দানে আম আদমী পার্টির ধরনায় যোগ দিয়ে এ ঘোষণা দেন তিনি। এতে ২০১৯ সালের মে মাসে অনুষ্ঠিব্য লোকসভা নির্বাচন ঘিরে নতুন সমীকরণ প্রকাশ্যে এলো। এনডিটিভির।

পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘দিল্লিতে কেরজিওয়াল লড়বে আমরা সকলে তাঁকে সমর্থন জানাবো৷ বিজেপিকে হঠাতে আমরা সকলে একজোট হয়ে লড়ব৷ রাজ্যে আমাদের সঙ্গে কংগ্রেস ও বামেদের বিরোধ থাকতেই পারে কিন্তু জাতীয় স্তরে আমরা একজোট৷’

পশ্চিমবঙ্গে বামফ্রন্টের ৩৫ বছরের শাসনের অবসান ঘটিয়ে ক্ষমতা আসেন মমতা ব্যানার্জি। তবু বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে সরাতে রাজ্যে সাপে-নেউলে সম্পর্ক থাকা বামফ্রন্টদের সঙ্গেও ঐক্য’র ঘোষণা দিলেন তৃণমূল প্রধান।

দীর্ঘ আলোচনার পর ‘গণতন্ত্র রক্ষা’র প্রশ্নে সিপিএম ও কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বাঁধতে প্রস্তুত থাকার কথা অবশেষে যন্তরমন্তরেই স্পষ্ট করেন তৃণমূল নেত্রী। এদিনের ধরনা মঞ্চে দেখা যায় বামফ্রন্টের সীতারাম ইয়েচুরি ও ডি রাজাকেও৷

গত মাসে কলকাতায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ২৩ দলের নেতা। সেসময়ই মোদি বিরোধী বৃহত্তর ঐক্য’র কথা আলোচনায় আসে।

এদিকে, অন্ধ্রপ্রদেশকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়ার দাবিতে দিল্লিতে অনশন করছেন চন্দ্রবাবু নাইডু। সঙ্গে দেখা করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, কাশ্মীরের ন্যাশনাল কনফারেন্সের চেয়াম্যান ফারুক আব্দুল্লাহ, এনসিপি নেতা মজিদ মেমন, তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা ডেরেক ও ব্রায়েন, ডিএমকের তিরুচি শিবা এবং সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা মুলায়ম সিং যাদব।