বাংলাদেশকে হারাতে সেরাটা দিতে হবে কিউইদের

নিউজ ডেস্ক:  মাশরাফিদের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি শুরু হচ্ছে নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে। সাকিবকে ছাড়াই শুরু হচ্ছে ওই প্রস্তুতি। তবে বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডের একমাত্র সিরিজ টাইগারদের বিপক্ষে। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের আগে ভারত এবং উইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে কিউইরা। বাংলাদেশ অবশ্য এই সিরিজ বাদেও আয়ারল্যান্ডে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে। কিউইদের জন্য তাই গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ এটা। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ হারের পর বিশ্বকাপের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর শেষ সুযোগ।

তবে কন্ডিশন এবং শক্তির বিচারে বাংলাদেশের চেয়ে যোজন এগিয়ে নিউজিল্যান্ড। যদিও তাদের ওপেনিং সমস্যার সামধান হয়নি এখনও। কলিন মুনরো আছেন আসা-যাওয়ার মধ্যে। তবে টপ অর্ডার নিটুট তাদের। বোলিং শক্তিতেও বেশ এগিয়ে থাকছে তারা। সেই হিসেবে বাংলাদেশ আন্ডারডগ হিসেবে খেলবে। বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস এমনই মনে করেন। তবে বাংলাদেশ যে এখন কোন প্রতিপক্ষের কাছেই আর আন্ডারডগ নয় সেটা ক্রিকেট বিশ্ব জেনে গেছে।

বাংলাদেশের জন্য চাপ হলো নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এখনও কোন ম্যাচ জিততে না পারা। ভালো ক্রিকেট খেললেও কিউই সফরে জয় না পাওয়ার ধাঁধাঁটা বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি এবার মেটাতে চাইবেন। তবে চিন্তা হলো সাকিবের অনুপস্থিতি। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের বিকল্প নেই দলের হাতে।

নেপিয়ারের উইকেট ফ্লাট হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। বৃষ্টির কোন আভাস নেই। শুরুতে পেসাররা সুইং পাবে। দু’দলের মধ্যে ভালো এক সিরিজের প্রত্যাশায় ক্রিকেট ভক্তরা। বাংলাদেশ কোচ রোডসেরও বিশ্বাস তেমনই, ‘আন্ডারডগ হিসেবে সিরিজ শুরু করা ভালো। আন্ডারডগ থেকেই এর আগে আমরা অনেক বিস্ময় উপহার দিয়েছি। আমার মনে হয় নিউজিল্যান্ড জানে, বাংলাদেশকে হারাতে হলে তাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে।’