ব্যভিচার আইন ৪৯৭ ধারা সংশোধন চাই: পুরুষ অধিকার আন্দোলন

নাইম রহমান, ঢাকা নিউজ:  বাংলাদেশ মেনস রাইটস ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এক মানব বন্ধন সোমবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন  তরুণ চিকিৎসক ডা: মোস্তফা মোরশেদ আকাশের স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক ও মানসিক যন্ত্রণায় গত ৩১ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার আত্নহত্যা করেন। পরবর্তীতে ডা: আকাশের ফেসবুক পোস্টের সূত্র ধরে তার স্ত্রী মিতুর অবাধ যৌনাচার সম্পর্কের কথা জানা যায়। ডা: আকাশের মৃর্ত্যৃজনিত কারণে তার স্ত্রী মিতুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমরা  মিতু এবং মিতুর পরিবারের, ডা : আকাশকে আত্নহত্যায় প্ররোচনার দায়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।আমরা বেভিচার আইন (৪৯৭ ধারা) সংশোধন চাই ।

বাংলাদেশ মেনস রাইটস মনে করে ব্যভিচারের ৪৯৭ ধারায় নারীর শাস্তির ব্যবস্থ্যা না রাখার কারণে নারীকে পরকীয়ায় বৈধতা দেয়া হয়েছে। যার ফলে প্রতিনিয়ত পরকীয়া জনিত হত্যাকান্ডের স্বীকার হচ্ছে স্বামী ও সন্তানেরা । সাম্প্রতিক সময়ে স্ত্রীর দ্বারা পারিবারিক কলহে স্বামী ও শিশু হত্যার সংখ্যা উদ্বেগজনকহারে বেড়েছে। আমরা মনে করি এই ধরনের উদ্বেগজনকহারে পরকীয়াজনিত কারণে হত্যাকান্ডের মূল কারণ ব্যভিচার আইনের ৪৯৭ ধারায় নারীকে দায়মুক্তি দেয়া । তাই আমরা ৪৯৭ ধারার সংশোধন ও নারীর জন্য সমান শাস্তির দাবী করছি ।

এছাড়াও ২০০০ সালের পারিবারিক সহিংসতা আইনে পুরুষের নাম না রাখায় । পারিবারিক সহিংসতায় হত্যাকান্ডের স্বীকার পুরুষরা যথাযথ বিচার পাচ্ছে না ।  এই আইন পুরুষের জন্য বৈষম্যপূর্ণ। তাই অবিলম্বে এই আইনের সংশোধন চাই ।

প্রতিবাদী মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ড. আব্দুর রাজ্জাক খাঁন। আরও উপস্থিত থেকে ব্যক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নাদিম , অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলামিন হোসাইন, নুরুজ্জামান, সামিন ইউয়োসাসহ সংগঠনের অন্যান্য সদস্যরা । এছাড়াও পুরুষ আন্দোলনের অন্যতম স্বপ্নদ্রষ্টা সিরাজী ভাই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন।