ঢাকার ঝুলন্ত তার ভূগর্ভে যাবে পর্যায়ক্রমে: এলজিআরডিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:   স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী (এলজিআরডি) তাজুল ইসলাম সংসদকে জানিয়েছেন, ঢাকা শহরের ঝুলন্ত তার পর্যায়ক্রমে ভূগর্ভস্থ বিতরণ লাইন ব্যবস্থার আওতায় আনা হবে। মঙ্গলবার সংসদে সরকারি দলের সাংসদ এ কে এম রহমতুল্লাহর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।

এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়।

একই প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী তাজুল ইসলাম আরও বলেন, ঢাকা শহরের রাস্তার পাশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ঝুঁকিপূর্ণ ঝুলন্ত তার অপসারণ করে ভূগর্ভে পাঠানোর জন্য বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় এবং টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন বিভাগের সমন্বয়ে একটি মনিটরিং কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ কমিটিতে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনও রয়েছে। এরই মধ্যে এ কমিটির মাধ্যমে ঢাকা শহরের প্রধান প্রধান ঝুলন্ত তার অপসারণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সব ঝুলন্ত তার ভূগর্ভে যাবে।

এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, ঢাকা শহরের ফুটপাত সংস্কার ও উন্নয়ন করা হচ্ছে। এর আওতায় ফুটপাত প্রতিবন্ধীদের ব্যবহারের উপযোগী করা হচ্ছে।

জাতীয় পার্টির আবু হোসেন বাবলার প্রশ্নের জবাবে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ঢাকা-৪ আসনের সংসদীয় এলাকায় সরকারি কোনো খাসজমি পাওয়া গেলে এবং এ বিষয়ে প্রস্তাব পাওয়া গেলে আধুনিক মাঠ ও মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

এম এ মতিনের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, উপজেলা পর্যায়ে মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

অসীম কুমার উকিলের প্রশ্নের জবাবে সংসদ কার্যে নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, দেশের সব জেলায় স্মার্টকার্ড বিতরণের কাজ চলমান আছে। বিতরণ করা জেলাগুলোতে এখনও যারা স্মার্টকার্ড পাননি, তাদের শিগগির দেওয়া হবে।