যুক্তরাষ্ট্রে টানা ৩৫ দিনের অচলাবস্থার সাময়িক অবসান

নিউজ ডেস্ক:  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলা টানা ৩৫ দিনের অচলাবস্থার সাময়িক অবসান হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য বরাদ্দ না পেলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুক্রবার কেন্দ্রীয় সরকার সাময়িকভাবে চালু করতে রাজি হয়েছেন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার ট্রাম্প আগামী তিন সপ্তাহের জন্য সরকার চালু করার বিলে সম্মতি দেন। এই বিলে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সরকারি কার্যক্রমে অর্থায়ন নিশ্চিত হয়েছে। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে দীর্ঘতম অচলাবস্থার সাময়িক অবসান হয়।

শুক্রবার দুপুরে হোয়াইট হাউজের গোলাপ বাগানে ভাষণ দেওয়ার সময় ট্রাম্প বলেন, আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের বিষয়ে কংগ্রেস যদি কোনও যথাযথ চুক্তিতে না পৌঁছায় তাহলে ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে সরকার আবারও অচলাবস্থায় পড়বে।

ট্রাম্পের স্বাক্ষরের পর সরকারের অচলাবস্থা নিরসনে অস্থায়ী বিলটি কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ এবং উচ্চকক্ষে কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এই অচলাবস্থার নিরসনের ফলে ফেডারেল সরকারের ৮ লাখ কর্মকর্তারা এখন বেতন পাবেন।

গত ২১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয় এই অচলাবস্থা। অচলাবস্থার কারণে বিমানবন্দরকর্মী, কারারক্ষী এবং এফবিআই এজেন্টসহ আরও অনেক সরকারি সংস্থার কর্মীদের বেতন আটকে ছিল।

২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের প্রচারণাকালে অন্যতম আশ্বাস ছিল মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ। কিন্তু ডেমোক্র্যাটদের বিরোধিতায় আটকে যায় তার সে পরিকল্পনা।

ডেমোক্র্যাটরা বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দাদের করের টাকা দিয়ে দেয়াল নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না। কংগ্রেসের নিম্ন কক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভে ডেমোক্র্যাটরা একটি বাজেট বিল পাস করলেও তাতে মেক্সিকো সীমান্তের জন্য তহবিল বরাদ্দ রাখা হয়নি।

অন্যদিকে ট্রাম্প বলেন, তার দাবিকৃত বরাদ্দ না রাখলে কোনো বাজেট বিলই তিনি অনুমোদন দেবেন না। উপরন্তু কংগ্রেসকে এড়িয়েই দেয়াল নির্মাণে জরুরি অবস্থা জারি করতে পারেন ট্রাম্প- এমন হুমকি দিয়ে আসছেন গত কয়েকদিন ধরে। মূলত এ দ্বন্দ্বের কারণে যুক্তরাষ্ট্র সরকারে সৃষ্টি হয় অচলাবস্থা।