ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে সুহৃদের কম্বল বিতরণ

নিউজ ডেস্কঃ চারিদিকে ব্র‏‏হ্মপুত্রের অথৈ পানি। খরস্রোতার সঙ্গে লড়াই করে বসত নতুনচর গ্রামের মানুষের। নদের সঙ্গে লড়াইয়ে বরাবরই হার মানতে হচ্ছে সেখানের মানুষদের। কখনও ভাঙন, আবার কখনও বন্যা মোকাবেলা করেই চলছেন সেখানের বাসিন্দারা। দ্বীপের মতো এলাকাটিতে সরকারি সহায়তা পৌঁছায় না বললেই চলে। ব্র‏হ্মপুত্রের জেগে ওঠা চরে বসতি গড়া অসহায় শীতার্ত মানুষগুলোর মাঝে উষ্ণতা ছড়িয়ে দিতে কম্বল নিয়ে হাজির হয় সুহৃদ সমাবেশের সদস্যরা।

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার অধীনে পড়েছে উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারপর নতুনচর গ্রামটি। নতুনচর গ্রামটি ময়মনসিংহ সদর, ত্রিশাল, গৌরীপুর ও ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী স্থানে অবস্থিত। ওই গ্রামে তিন শতাধিক পরিবারের বাস। এখানে বসবাসরতরা সবাই নদী ভাঙনের কবলে পরে নতুন চরের বসতি গড়েছে। গেল বছর বন্যায় তলিয়ে যায় গ্রামটি। নিদারুণ দুর্ভোগে পড়ে গ্রাম ছাড়তে বাধ্য হয় পরিবারগুলো। পানি কমার পর ফিরে আসে শেষ আশ্রয়স্থলে। এ বছর পানির কবলে পড়েনি নতুনচরের মানুষ। তবে ব্র‏হ্মপুত্রের দ্বীপটিতে শীতে কষ্টে দিনাতিপাত করছে মানুষগুলো। শীতার্ত চরাঞ্চলের এই মানুষগুলোর মাঝে উষ্ণতা ছড়াতে সমকাল সুহৃদ সমাবেশ ঈশ্বরগঞ্জ শাখা কম্বল বিতরণের উদ্যোগ নেয়।

অসহায় শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণের জন্য গত একমাস ধরে চলে প্রস্তুতি। সুহৃদ সমাবেশের সদস্য ও শুভানুধ্যায়ীরা সুহৃদ সমাবেশের উদ্যোগে এগিয়ে আসে। সকলের সম্মিলিত সহযোগিতায় ২ শতাধিক কম্বল নিয়ে শনিবার সুহৃদ সমাবেশের সদস্যরা যায় নতুনচর গ্রামে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১২টাল দিকে ঈশ্বরগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চত্বর এলাকা থেকে যাত্রা শুরু হয় ‘অসহায় মানুষের পাশে আমরা’ সুহৃদ সমাবেশের এই স্লোগানের গাড়ি। সড়ক পথে মরিচারচর চৌধুরী বাড়ির ঘাট থেকে ট্রলারে যেতে হয় নতুন চরে। ট্রলারে নতুন চরে যেতে সময় লাগে অন্তত আধা ঘণ্টা। নতুনচরে সুহৃদ টিমের পৌঁছাতে বেজে যায় বেলা ২টা। স্থানীয় মসজিদের মাইকে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কাশেম ঘোষণা করেন— সুহৃদের কম্বল চলে এসেছে।

এর আগে শনিবার সকালে অসহায় মানুষের তালিকা করে তাদের কাছে স্লিপ পৌঁছানো হয়। স্লিপ নিয়ে একে একে নারী, পুরুষ জড়ো হন ব্র‏হ্মপুত্রের তীরে। সুহৃদ সমাবেশের সদস্যরা সুশৃঙ্খলভাবে অসহায় মানুষগুলোকে কাতার করে বসিয়ে দেন। সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তব্য দেন উচাখিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম, সুহৃদ সমাবেশের উপদেষ্টা ফেরদৌস কোরাইশী টিটু, সুহৃদ সমাবেশের সহ-সভাপতি আবদুল্লাহ আল মামুন কামাল, সমকালের ঈশ্বরগঞ্জ প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান, সুহৃদ সমাবেশের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান, রুহুল আমিন রিপন, রাকিবুল ইসলাম শুভ, মহিউদ্দিন রানা, মো. মোস্তাকীম, রাজব দাস, মোজাম্মেল হক হিরণ, মশিউর রহমান টিটু, মোস্তাকীম পলাশ, আরিফুল হক, আল আমিন মর্তুজা, তরিকুল হাসান রাজন, অজয় গৌঁড়, মোহাইমিনুল ইসলাম শিহাব প্রমুখ।

স্লিপ নিয়ে কম্বল বিতরণ উদ্বোধন করেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম। এর পর একে একে স্লিপ সংগ্রহ করে অসহায় মানুষগুলোর হাতে কম্বল তুলে দেয় সুহৃদ সমাবেশের সদস্যরা। সুহৃদ সমাবেশের সদস্যদের হাত থেকে কম্বল পেয়ে খুশিতে বাড়ি ফেরেন অসহায় মানুষগুলো।

গ্রামের বাসিন্দা আবুল কাশেম বলেন, গ্রামটির প্রতি ওপর মহলের নজর কম। এখানে সব অসহায় মানুষের বসবাস। সমকাল সুহৃদ সমাবেশ অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ানোয় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

ঢাকানিউজ২৪ডটকম/জাহিদ