পশ্চিমবাংলায় গণতন্ত্র নেই: মোদি

 
 নিউজ ডেস্ক:   পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে গণতন্ত্র নেই বলে অভিযোগ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, বাংলায় গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে পারছে না বিজেপি। দলীয় কর্মীদের ওপর প্রতিদিনই হামলার ঘটনা ঘটছে। ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে এসব বলেন মোদি।
 

মোদি বলেন, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি রাজনৈতিক কর্মসূচিও পালন করতে দেওয়া হচ্ছে না। যে কারণে বাধ্য হয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। তার ভাষায়, ‘গণতন্ত্রে বিরোধীদের মুখ বন্ধের চেষ্টার তীব্র নিন্দা করছি। সবারই ন্যায় পাওয়ার অধিকার আছে।’

নরেন্দ্র মোদির এসব মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘বিজেপি গণতন্ত্রের সংজ্ঞাটাই বদলে দিতে চায়। তাদের কাছে, গণতন্ত্র মানে বিজেপির গণতন্ত্র। বাংলায় গণতন্ত্র ধ্বংস করছে বিজেপি। সাম্প্রদায়িকতার বিষ ছড়াচ্ছে তারা। আইন অমান্যের নামে অরাজকতা তৈরির চেষ্টা করছে।’

৯০ মিনিটের ওই সাক্ষাৎকারে বাবরি মসজিদের স্থলে রাম মন্দির নির্মান নিয়েও কথা বলেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন ‘কংগ্রেসই মন্দির নির্মাণে বাধা দিয়েছে।’ তবে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরই রাম মন্দির নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নরেন্দ্র মোদীর এ দিনের সাক্ষাৎকারকে ‘আমিত্বের বহিঃপ্রকাশ’ বলে সমালোচনা করেছে কংগ্রেস। সাংবাদিক বৈঠকে দলের নেতা রণদীপ সুরজেওয়ালা অভিযোগ করেন, মোদীর এই ‘আমিত্ব’ই দেশকে পিছনের দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলে।