নৌকায় ভোট দেওয়ায় ৮৪ বাড়িতে হামলা: জাফরউল্লাহ

নিউজ ডেস্ক:  নৌকায় ভোট দেওয়ায় ৮৪টি বাড়িতে হামলা-ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ফরিদপুর-৪ আসনে আওয়ামী লীগের পরাজিত প্রার্থী কাজী জাফরউল্লাহ।

বুধবার দুপুরে ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনের নির্দেশে তার কর্মী-সমর্থকরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ফরিদপুর-৪ আসনের মানুষ (ভাঙ্গা-সদরপুর-চরভদ্রাসন) এখনও স্বতন্ত্র প্রার্থী ও তার গুণ্ডা বাহিনীর ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। এ সময় তিনি উল্লেখ করে বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাঙ্গায় নির্বাচনী জনসভায় নৌকায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। এ অঞ্চলের মানুষ নেত্রীর কথায় নৌকায় ভোট দিয়েছিল। এখন এই ভোট দেওয়াটাই যেন পাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

কাজী জাফরউল্লাহ এ হামলার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুর রহমান মিরন, সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান রাজা, চরভদ্রাসন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাফেজ কাউসার প্রমুখ।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনের মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।

গত রোববার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৪৯ হাজার ৯৪৫ ভোটের ব্যবধানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কাজী জাফরউল্লাহকে পরাজিত করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন।