শেখ হাসিনার হাতেই দেশের সার্বিক উন্নয়ন: মতিয়া চৌধুরী

নিউজ ডেস্কঃ কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। দেশকে আলোকিত করেছেন। তার হাতেই
দেশের সার্বিক উন্নয়ন।

সোমবার শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলা শহরের পালপাড়া, আড়াইআনী বাজারের বোতলভাঙ্গা মোড় ও গড়কান্দা মহল্লায় পথসভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, মানুষ বাড়লেও দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এটি ধরে রাখতে হলে আবারও শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করতে হবে।

এ সময় মতিয়া চৌধরী আরও বলেন, রোহিঙ্গা ছেলেটার নাক ভাঙা, গায়ে ব্যান্ডেজ, ময়লা ও গন্ধ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে পরম মমতায় জড়িয়ে ধরলেন, কাঁদলেন।

পাশে বঙ্গবন্ধুর আরেক কন্যা শেখ রেহানা বললেন, ‘১৬ কোটি মানুষকে খাওয়াতে পারো, ১০ লাখ রোহিঙ্গাকেও খাওয়াতে পারবে।’

শেখ হাসিনা বললেন, দরকার হলে খাবার ভাগ করে খাব, তবু তাদের সমুদ্রে ফেলতে পারব না। তিনি আশ্রয় দিলেন, খাবার দিলেন। তারাই হলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা, যারা মানুষের কষ্টে কাঁদেন। রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেন, খাবারের ব্যবস্থা করেন। পক্ষান্তরে, ১৯৯২ সালে যখন রোহিঙ্গা আসে, তখন প্রধানমন্ত্রী হয়েও খালেদা জিয়া একদিনের জন্য তাদের দেখতে যাননি। সেদিন কিন্তু বিরোধী দলের নেতা হয়ে শেখ হাসিনা তাদের দেখতে গিয়েছিলেন।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, যদি রোহিঙ্গাদের দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হয়, তবে নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে। সুদক্ষ কূটনীতির মাধ্যমে তাদের বাড়িতে ফেরত পাঠাতে পারবেন শুধু শেখ হাসিনা, অন্য কেউ নন।

পথসভায় আরও উপস্থিত ছিলেন নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউল মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, পৌর মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিক, সাবেক সভাপতি ও সাবেক মেয়র আবদুল হালিম উকিল, নকলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম সোহাগসহ দলীয় নেতাকর্মীরা।