তথ্য গোপনের অভিযোগে কুলাউড়া আসনের মহাজোট প্রার্থী শাহীনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) আসনের মহাজোট প্রার্থী বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য এমএম শাহীনের মনোনয়নের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে একটি রিট করা হয়েছে।

কুলাউড়া আসনের ভোটার ও সাবেক মেয়র কামাল উদ্দিন আহমেদ এর পক্ষে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট করেন আইনজীবী কামরুন নাহার সীমা।

রিটে তথ্য গোপনের অভিযোগে তার মনোনয়পত্র বাতিলের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

রিটকারীর আইনজীবী কামরুন নাহার সীমা জানান, কুলাউড়া সংসদীয় আসনে মহাজোটের মনোনীত প্রার্থী এমএম শাহীন হলফনামায় তার তথ্য গোপন করে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

হলফনামায় তিনি একটি মামলার কথা উল্লেখ করেছেন। অথচ তার বিরুদ্ধে আরো তিনটি মামলা চলমান রয়েছে যা তিনি হলফনামায় গোপন রেখেছেন। বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে লিখিতভাবে জানালেও কমিশন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

এ বিষয়ে সীমা বলেন, আইনানুযায়ী হলফনামায় তথ্য গোপন করলে কারো মনোনয়ন বৈধ হতে পারে না। এ কারণে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি উচ্চ আদালতে এসেছেন। রিটে তার মনোনয়ন কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে। পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা অভিযোগটি দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

আগামী সোমবার বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিটের শুনানি হতে পারে বলে আইনজীবী জানান।