১৯৭০ সালের মতই আবারও নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে: নাসিম

নিউজ ডেস্কঃ শাহজাদপুরে নির্বাচনী জনসভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দেশে ১৯৭০ সালের মতো নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

এবারের নির্বাচনে নৌকার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না। উন্নয়নের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার বিজয় মানেই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির বিজয়, জনগণের বিজয়।

বুধবার বিকেলে শাহজাদপুরের জামিরতা কলেজ মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এ জনসভার আয়োজন করে।

জনসভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও পোরজোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম মুকুল। প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতা সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ূয়া, গণআজাদী লীগ সভাপতি এস কে শিকদার, জাপার (মঞ্জু) প্রেসিডিয়াম সদস্য এজাজ আহমেদ মুক্তা, বাসদ নেতা রেজাউর রশিদ খান, হাসিবুর রহমান স্বপন এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সহভাপতি অ্যাডভোকেট কে এম হোসেন আলী হাসান, শাহজাদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক আজাদ রহমান, অ্যাডভোকেট আবদুল হামিদ লাভলু, সাজ্জাদ হায়দার লিটন প্রমুখ।

এবারের নির্বাচনকে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে নাসিম আরও বলেন, শুধু দেশের মানুষই নয়, উন্নয়নে বিস্মিত বিশ্ব নেতারা শেখ হাসিনাকে ফের ক্ষমতায় দেখতে চান।

এ সময় তিনি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হাসিবুর রহমান স্বপনের জন্য ভোট চান।

বিএনপিকে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ১০ বছর দেশের উন্নয়ন করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। জনগণের কাছে ভোট চাওয়ার অধিকার তারই আছে। অন্য কারও নেই। অন্য যারা ভোট চাইতে আসবে, জনগণই তাদের প্রত্যাখ্যান করবে।

এদিকে, বুধবার সন্ধ্যায় শাহজাদপুরে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাসিবুর রহমান স্বপনের নির্বাচনী আলোচনা সভায় মোহাম্মদ নাসিম বলেন, জামায়াতকে ধানের শীষ প্রতীক দিয়ে নির্বাচনে টেনে এনে বিএনপি প্রমাণ করেছে, তারা জামায়াতের মতোই যুদ্ধাপরাধী, সন্ত্রাসী দল।

শাহজাদপুর সরকারি কলেজ মাঠে শাহজাদপুর বণিক সমিতি এ সভার আয়োজন করে। সভায় বণিক সমিতির সভাপতি মোশাররফ হোসেন সভাপতিত্ব করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন প্রার্থী হাসিবুর রহমান স্বপন এমপি, মিল্ক ভিটার ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুল হামিদ লাবলু ও শাহজাদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক আজাদ রহমান।